আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সীমান্তে চীনের হাতে শহিদ ভারতীয় জওয়ান। তার পরেই চীনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দেয় ব্যবসায়ী সংগঠন থেকে কট্টরপন্থী দল। এবার সেই পথেই কলকাতার জোম্যাটো কর্মীরা। ছিঁড়ে ফেললেন জোম্যাটো লেখা টিশার্ট। চাকরিও ছাড়লেন অনেকে। বিক্ষোভকারীদের দাবি, জোম্যাটোতে চীনা বিনিয়োগ হয়েছে। তাই প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন তাঁরা। 
রবিবার বেহালায় সংস্থার দফতরের সামনে হয় প্রতিবাদ। প্রতিবাদীদের বক্তব্য, ‘‌জোম্যাটোতে চীনা বিনিয়োগ হয়েছে সম্প্রতি। প্রতিবাদে আমরা চাকরি ছেড়েছি। আপনারাও খাবার অর্ডার বন্ধ করুন।’‌ যদিও চীনা বিনিয়োগ হয় ২০১৮ সালে। আলিবাবা ২১ কোটি মার্কিন ডলার এই সংস্থায় বিনিয়োগ করেছিল। কিনেছিল প্রায় ১৪.৭% শেয়ার। সম্প্রতি আরও ১৫০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ হয়েছে এই সংস্থায়।
১৫ জুন পূর্ব লাদাখের নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারত–চীন মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। শহিদ হন এক কর্নেল সহ ২০ জন ভারতীয় জওয়ান। সেই প্রতিবাদেই চীনা পড়্য বয়কটের ডাক উঠেছে দেশ জুড়ে। দিল্লির ছোট হোটেল মালিকরা জানিয়েছেন, সেখানে চীনা পর্যটকদের থাকতে দেওয়া হবে না। এবার সেই পথে জোম্যাটোর কর্মীরা। প্রতিবাদীদের দাবি, ‘‌আমাদের থেকে লাভ করে, আমাদের জওয়ানদের মারছে চীন। আমাদের জমি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। এরকম চলতে পারে না।’‌ আরও এক প্রতিবাদীর দাবি, ‘‌আমরা না খেয়ে মরব, কিন্তু চীনা বিনিয়োগ আছে এমন সংস্থায় কাজ করব না।’‌ সংস্থার তরফে অবশ্য এ বিষয়ে মুখ খোলা হয়নি। 

জনপ্রিয়

Back To Top