আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌হায়দরাবাদের পশু চিকিৎসকের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় উত্তাল গোটা দেশ। নারী সুরক্ষার উদ্দেশ্যে সরকার না, এগিয়ে আসছেন সাধারণ মানুষ। পিছিয়ে নেই কলকাতাও। সোশ্যাল মিডিয়াকে মাধ্যম করে তরুণ–তরুণীরা শহরের মহিলাদের নিরাপত্তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। দেশের মাটিতে ঘটে যাওয়া একের পর এক ধর্ষণকাণ্ডে ক্ষুব্ধ হয়ে করতোয়া, কিঙ্কিণী, অভিষেক, দেবতনু, কৃষ্ণেন্দুর মতো আরও তরুণ–তরুণী নিজের হাতেই তুলে নিলেন দায়িত্ব। করতোয়া জানালেন, ‘‌আমার নম্বর আমি ফেসবুকে শেয়ার করেছি যাতে কোনও মহিলা বিপদে পড়লে আমাকে জানান এবং আমি পুলিশকে খবর দিতে পারি বা অন্তত নিজে পৌঁছে যেতে পারি।’‌ দেবতনু ও কৃষ্ণেন্দুও নিজেদের নম্বর সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন। এই দুই নাট্যকর্মী জানালেন, বিভিন্ন নাট্যদল থেকে এই প্রকল্পের সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনমতো তাঁরা বাইক নিয়ে বেরিয়ে সাহায্য করতে যাবেন। এছাড়াও ফেসবুক ও হোয়াটস্যাপে ‘‌উইমেন ফর উইমেন’ নামে কিছু গ্রুপ খোলা হচ্ছে যেখানে মহিলারা রাতে বাড়ি ফেরার সময়ে নিজের লাইভ লোকেশন শেয়ার করে রাখবেন। এই সৎ প্রচেষ্টার মধ্যে বাধা দেওয়ার লোকেরও অভাব নেই। দেবতনু নিজের নম্বর শেয়ার করার পরেই তাঁর কাছে বিভিন্ন ফোন আসতে থাকে। কেউ তাঁকে এই দায়িত্ব থেকে সরে যেতে বলেন তো কেউ ফোন করে মস্করা করেন। কিন্তু এরপরেও এই তরুণ–তরুণীরা কেউ সাহায্যের হাত সরিয়ে নেবে না বলেই জানিয়েছেন। 

জনপ্রিয়

Back To Top