আজকাল ওয়েবডেস্ক: আচমকাই ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিয়েছেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ যা নিয়ে ফেসবুক টুইটারে বিস্তর হইচই হয়েছে। এবার সেই রুদ্রনীল প্রশ্ন তুললেন, মুসলিমরা এখন আর সংখ্যালঘু নয়, তাহলে শুধু হিন্দুরাই কেন ধর্ম নিরপেক্ষ হবে?
এককালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়গান গাওয়া রুদ্রনীল সম্প্রতি তৃণমূলের ওপর বিরক্ত হয়ে পড়েছিলেন। সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কোনও কথা অবশ্য তিনি বলেননি। সংখ্যালঘু প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কেন্দ্রের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের সমর্থন করেছেন জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতাটি। তাঁর কথার সুর গেরুয়া শিবিরের সুরেই ছিল বাঁধা। 
তাঁর প্রশ্ন, ‘ভারতে কি শুধু হিন্দুদের ওপরেই ধর্ম-নিরপেক্ষতা বজায় রাখার দায়িত্ব রয়েছে? আমরা এমনভাবে এটা অনুসরণ করি যেন কোথাও লেখা রয়েছে। আমি বাংলাদেশের বন্ধুদের থেকে খবর পাই ওখানে হিন্দুদের ওপর অত্যাচার চলে। ওদের নাগরিকত্ব দেওয়ায় কী ভুল আছে। প্রতিবেশী দেশগুলোর সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ায় সমস্যা কীসের?’
রুদ্রনীলের দাবি, ভারতে মুসলিমরা আর সংখ্যালঘু নয় কারণ ওরা আর পাঁচ শতাংশে সীমাবদ্ধ নয়। বরং জৈন এবং খ্রিস্টানদের সংখ্যালঘু বলা যেতে পারে বলে অভিমত তাঁর। সিএএ-র যারা বিরোধিতা করছে, বিশেষ করে বাম দলগুলো সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করছে বলে মনে করেন তিনি। রুদ্রনীলের কথায়, ‘ওরা বলছে এই আইন অনেকের নাগরিকত্ব কেড়ে নেবে। কিন্তু আমার এটা বোঝার বুদ্ধি আছে যে ওরা মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে। এই আইন নাগরিকত্ব দেওয়ার কেড়ে নেওয়ার নয়।’ 
 

জনপ্রিয়

Back To Top