আজকালের প্রতিবেদন: মঙ্গলবার বিদ্যাসাগর কলেজে বিদ্যাসাগরের মূর্তি বসানো হবে। নির্বাচনের আগে কলেজের ভেতরে তাণ্ডব করে একদল দুষ্কৃতী বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে দেয়। ওই দিনই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়ে এসেছিলেন, সরকারের পক্ষ থেকে মূর্তি বসানো হবে। ১১ জুন হেয়ার স্কুলের মাঠে সভা হবে। উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে। এছাড়া থাকবেন বিদ্বজ্জন ও বিদ্যাসাগরের পরিবারের সদস্যরা। হেয়ার স্কুলের মাঠ থেকে সভার পর বিদ্যাসাগরের প্রতীকী মূর্তি মুখ্যমন্ত্রী হেঁটে নিয়ে যাবেন বিদ্যাসাগর কলেজে। দুটি ব্রোঞ্জের মূর্তি বসানো হবে এই কলেজে। একটি থাকবে কলেজের গেটের সামনে। প্রতীকী মূর্তি বসিয়ে পরে ব্রোঞ্জের মূর্তি বসানো হবে। শনিবার তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি সাংবাদিকদের বলেন, ‘‌শিল্পী, সাহিত্যিক ও সমাজের বিশিষ্টজনেরা অনুষ্ঠানে থাকবেন। বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে ভূলণ্ঠিত করেছে বিজেপি। রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর ও বিদ্যাসাগর দুশো বছর উদ্‌যাপন উপলক্ষে তৈরি করা কমিটি এই মূর্তি বসাবে। ১১ জুন বিদ্যাসাগর কলেজে যাওয়ার আগে মুখ্যমন্ত্রী কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসে আসবেন বলে জানা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মিউজিয়ামটি ঘুরে দেখবেন তিনি। সংস্কারের কাজ দেখতে দ্বারভাঙা ভবনেও যেতে পারেন।
মঙ্গলবার বিদ্যাসাগর কলেজের ক্যাম্পাসে যে পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল, তার দিন বদল করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এই কারণে।  জৈবরসায়ন অনার্সের সেমেস্টার–২–এর প্র‌্যাকটিক্যাল পরীক্ষা ছিল। বিদ্যাসাগর কলেজে আসন পড়েছে আশুতোষ কলেজের পড়ুয়াদের। ১১ ও ১২ জুন পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। তার পরিবর্তে পরীক্ষা হবে ১৩ ও ১৪ জুন। পরীক্ষা পিছোনোর কারণ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, উচ্চশিক্ষা দপ্তরের নির্দেশেই পরীক্ষার দিন বদল করা হয়েছে। কলেজের পক্ষ থেকে পরীক্ষার দিন পিছিয়ে দেওয়া নিয়ে দপ্তরের কাছে আবেদন করা হয়েছিল। এরপরই দপ্তরের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়কে পরীক্ষার দিন বদল করতে বলা হয় বলে জানা গেছে। তবে পুরনো ক্যাম্পাসে ওই দিনের লিখিত পরীক্ষা নির্ধারিত সূচি মেনেই হবে।  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top