প্রিয়দর্শী বন্দ্যোপাধ্যায়: এবার রাতের শহর ও শহরতলিতে চলবে সরকারি বাস ও ট্রাম। হাওড়া স্টেশন থেকে নৈশ বাস ও ট্রাম পরিষেবার সূচনা করলেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। হাওড়া স্টেশন সংলগ্ন বাসস্ট্যান্ড থেকে শিয়ালদা, হাওড়া, এয়ারপোর্ট এবং কলকাতা স্টেশনকে কেন্দ্র করে ১৪টি রুটে প্রায় ২৫টি বাস ও ২টি ট্রাম চলবে। এদিন অনুষ্ঠানে সবুজ পতাকা নাড়িয়ে এই পরিষেবার সূচনা করেন পরিবহণমন্ত্রী। হাওড়া স্টেশনের বাস টার্মিনাসে এদিনের অনুষ্ঠানে ছিলেন ক্রীড়া রাষ্ট্রমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লা, সাংসদ প্রসূন ব্যানার্জি, বিধায়ক সুজিত বসু, হাওড়ার মেয়র ডাঃ রথীন চক্রবর্তী, পরিবহণ সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ।
হাওড়া থেকে বারাসত, মধ্যমগ্রাম, নিউ টাউন, বালিগঞ্জ, করুণাময়ী, জোকা, এয়ারপোর্ট, গড়িয়া, ব্যারাকপুর— এই সমস্ত রুটে চলবে নৈশ বাসগুলি। এ ছাড়া বেলগাছিয়া থেকে এসপ্ল্যানেড রুটে ২টি ট্রাম চলবে। রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত মিলবে এই পরিষেবা। পাশাপাশি এই বাস ও ট্রামের সমস্ত তথ্য ‘‌পথদিশা’‌ অ্যাপের মাধ্যমে জানা যাবে। জিপিএস ব্যবস্থার সাহায্যে অ্যাপের মাধ্যমে জানা যাবে তার গতিবিধি ও সময়সূচি। নিরাপত্তার জন্য রাতের বাস ও ট্রামে থাকবে সিসি ক্যামেরা। বাসচালক ও কন্ডাক্টরদের তথ্য দেওয়া থাকবে সংশ্লিষ্ট থানায়। এদিন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রীর প্রস্তাব ও পরামর্শ অনুযায়ী এই পরিষেবার সূচনা হল। আগামী দিনে পরিবহণ দপ্তর রাজ্যবাসীকে নানা উপহার দেবে। প্রতিটি জেলা সদর থেকে কলকাতা শহরে ‘‌রাজধানী’‌ ভলভো বাস চালানো হবে। কিছুদিনের মধ্যেই কলকাতার রাস্তায় চলবে ৪০টি ইলেকট্রিক বাস।’‌ পাশাপাশি তিনি জানান, দুর্ঘটনা রুখতে হাওড়া শহরকে মুড়ে ফেলা হচ্ছে সিসি ক্যামেরায়। এ ছাড়া জলপথ পরিবহণের ক্ষেত্রেও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

জনপ্রিয়

Back To Top