আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নতুন টালা সেতু তৈরির কাজ ইতিমধ্যেই জোরকদমে শুরু করে দিয়েছে রাজ্য সরকার। নতুন ব্রিজ ঠিক কতটা ভার বহন করতে পারবে, সেই সংক্রান্ত পরীক্ষা নিরীক্ষা একধাপ হয়েই গিয়েছে। নতুন টালা ব্রিজটি কেমন দেখতে হবে, তা নিয়ে জল্পনার মাঝেই তৈরি করে ফেলা হল টালা ব্রিজের নতুন মডেল। বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ টালা ব্রিজের নতুন মডেলটি প্রদর্শন করে কলকাতা পুরসভা। তার কিছুক্ষণ আগেই পুর কমিশনার দেখিয়ে আনা হয়েছিল নতুন মডেলটি। তারপরই সেটিকে সাংবাদিকদের সামনে আনা হয়।
পূর্ত দপ্তর আগেই জানিয়েছিল, ‘‌আইআরসি–৬’‌ নির্দেশিকা মাথায় রেখেই টালা সেতুর নকশা তৈরি করা হচ্ছে। সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, সেতুর নকশা এমন ভাবে হতে হবে যাতে তা কারখানার যন্ত্রাংশ বহনকারী বিশেষ ধরনের গাড়ির ভারও বহন করতে পারে। যন্ত্রাংশ বহনকারী, ২০ অ্যাক্সেল বা ৮০ চাকাযুক্ত ওই ধরনের গাড়ির ওজন হয় ৩৮৫ টন। নকশার মূল লক্ষ্য, অন্তত ১০০ বছরের জন্য সেতুর স্থায়িত্ব নিশ্চিত করা।  
ট্রাফিক সমস্যার কথা ভেবে টালা ব্রিজ ভাঙা নিয়ে সন্দিহান ছিল রাজ্য। ব্রিজের উপর চাপ কমাতে পুজোর আগে ভারী গা়ড়ি চলাচল বন্ধ করা হয়েছিল। বিকল্প পথে চলছিল যানবাহন। কিন্তু মাঝেরহাট সেতু বিপর্যয়ের ঘটনার বিষয়টি মাথায় রেখে শেষ পর্যন্ত কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না রাজ্য সরকার। তারপরই গত ১ নভেম্বর জীর্ণ টালা ব্রিজ ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। নবান্নে রেল, পূর্ত দপ্তর এবং প্রশাসনিক আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিল রাজ্য সরকার।    ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top