দীপঙ্কর নন্দী: ইভিএম নিয়ে কারচুপি হতে পারে, এই আশঙ্কা আগেই প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি এ–ও বলেছেন, হাজার হাজার ইভিএম কারচুপি করে বিজেপি জিততে চাইছে। তাই এবার অতি সতর্ক হতে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে দলের নেতারা যেখানে কাউন্টিং এজেন্টদের নিয়ে বৈঠক করেছেন, সেখানে তাঁরা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, স্ট্রংরুমের সামনে রাতপাহারায় থাকতে হবে কর্মীদের। তার কারণ, যে কোনও সময় ইভিএম পাল্টে দেওয়া হতে পারে। মঙ্গলবার থেকে স্ট্রংরুমের সামনে পালা করে পাহারা দিচ্ছেন তৃণমূলের কর্মীরা। স্ট্রংরুমের সামনে কেন্দ্রীয় বাহিনী রয়েছে। ধারেকাছে তাঁরা যাচ্ছেন না। কিছু দূর থেকেই কর্মীরা নজর রাখছেন।
গণনাকেন্দ্রে একেকটি টেবিলে একজন করে দলের এজেন্ট থাকবেন। এ ছাড়া সেই হলে দলের পক্ষ থেকে এআরও নিযুক্ত করা হয়েছে। তাঁর কাজ হবে, প্রতি টেবিল থেকে গণনার ফলাফল নিয়ে দলকে জানানো। ভিভিপ্যাটের ওপর বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। দল থেকে এ ব্যাপারে ভিভিপ্যাট সম্পর্কে প্র‌য়োজনীয় নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। সাধারণত গণনার সময় যিনি প্রথম এজেন্ট হয়ে ঢোকেন, তাঁকেই শেষ পর্যন্ত থাকতে হয়। এবার যদি কোনওভাবে রাত হয়ে যায়, তাহলেও সেই এজেন্টকেই থাকতে হবে। প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্র ধরে ধরে বিধায়করা কাউন্টিং এজেন্টদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এজেন্টদের কতগুলি নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, কোনও প্ররোচনায় তাঁরা যেন পা না দেন। বিজেপি অনেক সময় গুজব রটিয়ে দিতে পারে, সেদিকে কান না দিতে বলা হয়েছে। ‌দলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি ঝাড়গ্রামে গেছেন। তিনি বেহালার কাউন্টিং এজেন্টদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়ে গেছেন। তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি মঙ্গলবার সন্ধের পর ভবানীপুরে নিজের পার্টি অফিসে কাউন্টিং এজেন্টদের নিয়ে বৈঠক করেছেন। মেয়র ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, আরেক মন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি সন্ধের পর নিজেদের এলাকায় এজেন্টদের সঙ্গে বৈঠক করেন। যাদবপুরে ভোটের দায়িত্বে রয়েছেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। তিনি সারা দিনই এই কাজে ব্যস্ত ছিলেন। দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিজেপি গণনাকেন্দ্রের সামনে উত্তেজনা সৃষ্টি করতে পারে। দলের কোনও কর্মী যেন টেবিল ছেড়ে না ওঠেন। কমিশন যে সব নির্দেশ দিয়েছে, তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করতে হবে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কালীঘাটের বাড়িতেই ছিলেন। ফোনে তিনি বিভিন্ন নেতার সঙ্গে কথা বলেছেন।
সোমবারই অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে এসে আধঘণ্টার ওপর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল ইভিএম–প্রসঙ্গ। মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যেই বলেছেন, ‘‌আমি এই সব সমীক্ষায় বিশ্বাস করি না।’‌ ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, ‘‌সমীক্ষা নিয়ে যাঁরা নাচানাচি করছেন তাঁরা মূর্খের স্বর্গে বাস করছেন।’

জনপ্রিয়

Back To Top