আজকালের প্রতিবেদন
বাড়ি ফিরলেন সাহসিনী নীলাঞ্জনা চট্টোপাধ্যায়। রবিবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে তিনি বললেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ধন্যবাদ। কলকাতা পুলিশকে ধন্যবাদ। অপরাধী ধরা পড়েছে। কলকাতাকে আমরা বলি সিটি অফ জয়। আনন্দের শহর। কলকাতা যেন সেরকমই থাকে।’‌  আনন্দপুরের ঘটনায় গাড়ি চাপায় তাঁর পায়ের হাড় ভেঙে গিয়েছিল, মাথায় আঘাত লেগেছিল। এদিন হাসপাতাল থেকে তিনি যখন বেরিয়ে আসছেন, তখন চিকিৎসক ও নার্সরা দু’‌পাশে দাঁড়িয়ে সমবেত কণ্ঠে গাইলেন ‘‌হও ধরমেতে ধীর/‌ হও করমেতে বীর’‌। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অপারেশনের তিন দিনের মাথায় তিনি হাঁটতে পেরেছিলেন। ৮ দিনের মাথায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন। আপাতত ৩ মাস তিনি বিশ্রামে থাকবেন। ফিজিওথেরাপি চলবে। 
দিন দশেক আগে এক রাতে মায়ের বাড়ি থেকে ফেরার সময় এক তরুণীকে গাড়ি থেকে পড়ে যেতে দেখেন। নীলাঞ্জনাদেবী বাঁচাতে যান। ওই মহিলার হবু স্বামী গাড়ি ঘুরিয়ে পালানোর সময় নীলাঞ্জনার পায়ে চাপা দিয়ে যান। নীলাঞ্জনার ডান পায়ের হাড় ভেঙে যায়। মাথায় আঘাত লাগে। পুলিশ তদন্তে নেমে ২ জনকে গ্রেপ্তার করে। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top