দীপঙ্কর নন্দী
রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের কথার প্রতিবাদ জানাল তৃণমূল।  
শনিবার রাজ্যপাল বলেছেন, ‘‌বাংলায় শুধুই বোমার কারখানা।’‌ মুর্শিদাবাদ থেকে ৬ জন আইএএস জঙ্গি গ্রেপ্তারের পর রাজ্যপাল বলেন, ‘‌প্রমাণ হয়ে গেল বাংলায় কোনও আইনশৃঙ্খলা নেই।’‌
এদিন কলকাতা পুরসভার প্রধান প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম রাজ্যপালের উদ্দেশে বলেন, বাংলার প্রশাসনকে যদি আপনার এতই খারাপ লাগে তাহলে আপনি রাজ্যপালের পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে বাড়ি ফিরে যান। আমরা বুঝে নেব। মুর্শিদাবাদ থেকে এনআইএ যাদের ধরেছে তা নিয়ে রাজ্যপালের এত লাফালাফি করার কী আছে?‌ এনআইএ–র কাজই তো উগ্রপন্থীদের খুঁজে বের করে গ্রেপ্তার করা। ওদের তো বসে থাকা কাজ নয়। বাংলাকে নিয়ে রাজ্যপাল যদি গর্ব অনুভব না করেন তাহলে পদে থাকার কোনও অধিকার তাঁর নেই। বিজেপি–‌র রাজ্যে এনকাউন্টার করে পুলিশ আসামিদের মেরে দিচ্ছে। তখন কোথায় থাকছেন আমাদের এই রাজ্যপাল?‌ ওঁর মূল উদ্দেশ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে যে–‌কোনও ভাবেই হোক অসম্মান করা, অপমান করা। এই বাংলার সংস্কৃতি তাঁর যদি পছন্দ না হয় তাহলে তিনি চুপ করে থাকুন। এই রাজ্যপালের আগে আমরা অনেক রাজ্যপাল দেখেছি। তাঁরা প্রশাসনকে মর্যাদা দিতেন। অসম্মান করা তো দূরের কথা, তাঁদের সৌজন্য বোধ ছিল। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করতেন। আসলে এই রাজ্যপাল বিজেপি নেতার মতো কথা বলছেন। আমাদের এই ধরনের রাজ্যপাল চাই না।’‌  
 অন্যদিকে দলের সাংসদ ও মুখপাত্র সৌগত রায় বলেন, ‘‌আইনশৃঙ্খলা দেখার কথা নয় রাজ্যপালের। কেন্দ্রের অনেক গোয়েন্দা সংস্থা আছে যারা নানা ধরনের খবর রাখে। এনআইএ তাদের মধ্যে অন্যতম। এখানে রাজ্যপাল টুইট করছেন কেন বুঝতে পারছি না। তিনি তো অন্যায় করছেন। উনি এটা বুঝতে পারছেন না উনি যা বলছেন, সবটাই ওঁর বিরুদ্ধে যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি রাজ্যকে কোনও খবর দিচ্ছে না। আমি রাজ্যপালের কাছে জানতে চাই বাংলায় কি সবাই বোমা বানায়?‌ তিনি তো উস্‌কানি দিচ্ছেন। তিনি চাইছেন বাংলায় বড় ধরনের গোলমাল হোক। এমন রাজ্যপাল আমরা কখনও দেখিনি।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top