আজকালের প্রতিবেদন
প্রতীক্ষার অবসান। শতবর্ষে সেরা উপহার পেল ইস্টবেঙ্গল। আইএসএলে ইস্টবেঙ্গলের অন্তর্ভুক্তির কথা ঘোষণা করলেন এফএসডিএলের চেয়ারপার্সন নীতা আম্বানি। শ্রী সিমেন্ট ইস্টবেঙ্গল ফাউন্ডেশনের হাত ধরে আইএসএলে খেলার সুযোগ পাওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে এফএসডিএলের বিজ্ঞপ্তিতে। 
ইস্টবেঙ্গলের যোগদানে খুশি ফেডারেশন সচিব কুশল দাস। এএফসি লাল–‌হলুদের অন্তর্ভুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে। নীতা আম্বানির বক্তব্য, ‘আইএসএলের কাছে এটা খুশির মুহূর্ত। ইস্টবেঙ্গল ও তাদের লক্ষ লক্ষ সমর্থককে স্বাগত জানাতে পেরে গর্বিত। দুই ঐতিহ্যশালী ক্লাব ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগানের অন্তর্ভুক্তিতে ভারতীয় ফুটবলে, বিশেষ করে বাংলায় প্রতিভা বিকাশের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত খুলে গেল। ভারতীয় ফুটবলে বাংলার অবদান অনস্বীকার্য। এই পদক্ষেপ ভারতীয় ফুটবলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা যেমন বাড়াবে, প্রতিযোগিতার আকর্ষণও বাড়াবে।’‌
এই দিনটার দিকেই তাকিয়ে ছিলেন লাল–‌হলুদ সদস্য–‌‌সমর্থকরা। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সক্রিয় সহযোগিতায় তাঁদের ক্লাবের আইএসএল খেলার স্বপ্ন পূরণ হল। এখন দেখার ইনভেস্টার শ্রী সিমেন্টের তরফে নতুন নামে আইএসএল খেলার যে আবেদন রাখা হয়েছে, তা গ্রাহ্য হয় কিনা। এটি পরিষ্কার হবে ২৯ সেপ্টেম্বর ক্লাবের একস্ট্রা অর্ডিনারি স্পেশ্যাল জেনারেল মিটিংয়ে। তারপর নতুন বিদেশি কোচ ও দেশি–‌‌বিদেশি ফুটবলারদের নাম জানাবেন ইনভেস্টারের কর্তারা। শোনা যাচ্ছে, কোচ হিসেবে রবি ফাউলারের সঙ্গে কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়েছে। একজন ভারতীয় সহকারী কোচ রাখা জরুরি। উঠে এসেছে রেনেডি সিংয়ের নাম।
খুশি ইনভেস্টার শ্রী সিমেন্টের কর্ণধার হরিমোহন বাঙ্গুর। বলেছেন, ‘‌প্রত্যাশিতই ছিল। একটু দেরিতে গোছানোর সুযোগ পেলেও তৈরি আছি। তিন–‌চারদিনের মধ্যে শক্তিশালী দল গড়ে ফেলব। ছয় ও সাতের দশকের গৌরব ও সম্মান ফেরানোর ব্যাপারে সমর্থকদের আশ্বস্ত করছি। ক্লাবের সম্মান পুনরুদ্ধারে শক্তিশালী দল গড়ে ভাল খেলা, লড়াই করার মানসিকতা রাখাই গুরুত্বপূর্ণ।’‌ 
কোচ নিয়োগ থেকে দল বাছাইয়ের প্রক্রিয়া ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ হওয়ার সম্ভাবনা। হরিমোহনের বক্তব্য, ১০০ বছর পুরনো ক্লাবের মূল্য ও আবেগকে গুরুত্ব দিয়েই এগোবেন। আইএসএলে গোয়ায় ইস্টবেঙ্গল ও এটিকে মোহনবাগান মুখোমুখি হবে। এটাকে দুই বাণিজ্যিক সংস্থার লড়াই হিসেবে দেখতে নারাজ তিনি। ২০ দিন পরে কলকাতায় আসার সম্ভাবনা হরিমোহনের। জানিয়েছেন, কলকাতায় এলে অবশ্যই তিনি যাবেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top