SSKM: এসএসকেএমের ট্রমা কেয়ার সেন্টারের পরিষেবা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাজ্যের অন্যতম সেরা হাসপাতাল এসএসকেএমে ট্রমা কেয়ার সেন্টার–এর পরিষেবা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

বৃহস্পতিবার রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাস্ট্রসচিব, স্বাস্থ্যসচিব এবং রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তাদের সামনেই এই নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। ছিলেন হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস ও ডিরেক্টর ডা: মনিময় বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিকেলে স্বাস্থ্য বিষয়ক একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন করতে এসএসকেএম হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী। সোজা চলে যান ট্রমা কেয়ার সেন্টারে। কথা বলেন রোগীদের সঙ্গে। জানতে চান তাঁদের সমস্যার কথা। খুঁটিয়ে দেখেন তাঁদের চিকিৎসা সংক্রান্ত নানা দিক। 
এরপরেই অনুষ্ঠানমঞ্চে তাঁর ক্ষোভ প্রকাশ করেন মমতা। পরিস্কার বলেন, রোগী ভর্তি বা চিকিৎসা শুরু করতে এতটা সময় লাগা মোটেও ঠিক নয়। বিশেষ করে ট্রমা কেয়ার সেন্টারে। তিনি বলেন, ‘‌এই হাসপাতাল নিয়ে আমরা গর্ববোধ করি। এত সমস্ত পরিকাঠামো এখানে গড়ে তোলা হচ্ছে।’‌ মুখ্যমন্ত্রীর সাফ কথা, ‘‌আগে চিকিৎসা। তারপর নিয়মাবলী।’‌ কয়েকদিন আগেই এক রোগী মৃত্যুর ঘটনায় এসএসকেএমের ট্রমা কেয়ার সেন্টারে জুনিয়র চিকিৎসকদের হেনস্থার পাশাপাশি সেন্টারের টেবল, চেয়ার উল্টে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে মৃতের পরিজনদের বিরুদ্ধে।‌ ঘটনার পরেই রাতে হাসপাতালে যাতে সিনিয়র বা শিক্ষক চিকিৎসকরা থাকেন সেই বিষয়ে জোর দেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন সিনিয়র চিকিৎসকদের কাছে অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন যাতে তাঁরা পালা করে রাতে থাকেন। 
এদিনও প্রসূতি মৃত্যুর প্রসঙ্গে ‘‌রেফার রোগ’‌ নিয়ে সরব হন মমতা। পাশাপাশি বেসরকারি কলেজ থেকে পাস করে বেরোনোর পর চিকিৎসকদের যাতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয় সেই বিষয়টি দেখতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। নির্দেশ দেন আরও বেশি নার্স নিয়োগের। 
এদিন একটি বৈদ্যুতিক সাব স্টেশন, সংস্কারের পর ১০০ শয্যার পেডিয়াট্রিক মেডিসিন বিভাগ এবং স্পোর্টস মেডিসিন পরিষেবার উদ্বোধন ও ১২৪টি কেবিনের সুবিধা–সহ অন্যান্য বেশ কিছু পরিষেবার শিলান্যাস করেন তিনি।

 

আরও পড়ুন:‌ গুজরাট নির্বাচনে জয়ী জাদেজার স্ত্রী 

আকর্ষণীয় খবর