আজকালের প্রতিবেদন- আগামীকাল স্বাধীনতা দিবসের দিন থেকে ১৮ আগস্ট পর্যন্ত শিয়ালদা উড়ালপুল বন্ধ থাকবে। কেএমডিএ–‌র তরফে উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আগেই বলা হয়েছিল। সেই অনুযায়ী কলকাতা পুলিশ ওই দিনগুলিতে ট্রাফিক চলাচল নিয়ন্ত্রণ করবে। এদিকে বঙ্কিম সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ২৩ থেকে ২৫ আগস্ট, ৩ দিন যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে। সেতুর দুটি লেন দিয়েই ওই ৩ দিন যান চলাচল আংশিক বন্ধ থাকবে। হাওড়া স্টেশন কিংবা কলকাতা থেকে হাওড়া শহরে ঢোকার মূল প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত ওই সেতুটি আটের দশকে তৈরি হয়েছিল। কেএমডিএ ও এইচআইটি–‌র তরফে এই সেতুর রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়। সম্প্রতি কেএমডিএ হাওড়া সিটি পুলিশকে চিঠি দেয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য।
হাওড়া সিটি পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, ওই তিনদিন হাওড়া স্টেশন থেকে কোনও গাড়ি বঙ্কিম সেতুতে উঠতে পারবে না। ঘুরপথে গন্তব্যে পৌঁছতে হবে। এজন্য হাওড়ার বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছনোর যে গাড়ি চলাচল ব্যবস্থা রয়েছে তা ব্যাহত হবে। এ ব্যাপারে হাওড়া সিটি পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এক কর্তা জানান, হাওড়া স্টেশন থেকে শিবপুর কিংবা দক্ষিণ হাওড়াগামী যানবাহন রেল মিউজিয়ামের সামনে দিয়ে গ্র‌্যান্ড ফোরশোর রোড হয়ে বেরিয়ে যাবে। মধ্য হাওড়া তথা পঞ্চাননতলাগামী গাড়ি হাওড়া বাসস্ট্যান্ডের পাশ হয়ে আই সি বোস রোড ধরে বাঙালবাবুর ব্রিজ দিয়ে যাবে। উত্তর হাওড়াগামী যানবাহন যাহে ডবসন রোড ধরে। অন্যদিকে, সেতুর অন্য লেন তথা বঙ্গবাসী থেকে হাওড়া স্টেশনগামী লেনটিও আংশিক বন্ধ থাকবে। হাওড়া ময়দান তথা বঙ্গবাসীর দিকে সেতুর ওপর অনেক গাড়ি ও বাস পার্ক করে রাখাও এই ক’‌দিন চলবে না। ১৬ আগস্ট বাস মালিক সংগঠনের সঙ্গে সিটি পুলিশ কর্তা বৈঠক করবেন। পুলিশের তরফে প্রচারও চালানো হবে আগের দিন থেকেই।
এদিকে, শিয়ালদা উড়ালপুল ছাড়াও আগস্ট মাসেই স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বন্ধ থাকবে অরবিন্দ সেতু এবং জীবনানন্দ সেতু। শিয়ালদা উড়ালপুলের মাঝখানের যে অংশটি রয়েছে, সেই ১০০ মিটার রাস্তা ও সেতুর নীচে সারাইয়ের কাজ হবে। ১৬ আগস্ট শুক্রবার থাকায় ট্রাফিক চলাচলে কিছুটা সমস্যা হবে। তবে, পরের দু’‌দিন শনি ও রবিবারে ট্রাফিকের চাপ তেমন থাকবে না। গাড়িগুলি বিভিন্ন ঘুরপথে চলবে।‌‌

 

হাওড়ায় যান চলাচলের ‌বিকল্প রাস্তা দেখাচ্ছেন এক পুলিশকর্তা। ছবি:‌ কৌশিক কোলে

জনপ্রিয়

Back To Top