Sandhya Mukhopadhyay: রবীন্দসদনে শায়িত গীতশ্রীর দেহ, শেষকৃত্যে যোগ দিতে ফিরছেন মমতা

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মঙ্গলবার সন্ধেবেলা নিভেছে জীবনপ্রদীপ।

কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে। সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। আজই হবে তাঁর শেষকৃত্য। যোগ দিতে উত্তরবঙ্গ সফরে কাটছাঁট করে কলকাতা ফিরছেন মমতা ব্যানার্জি। বিকেলের মধ্যেই ফিরে আসছেন তিনি। তার পর সন্ধ্যায় হবে শেষকৃত্য। দেওয়া হবে সর্বোচ্চ সম্মান গান স্যালুট। জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।
হাসপাতাল থেকে সন্ধ্যার দেহ পিস ওয়ার্ল্ডে নিয়ে যাওয়া হয় গতকাল। রাতে সেখানেই রাখা ছিল। এদিন সকালে রবীন্দ্র সদনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে গীতশ্রীর দেহ। সেখানেই শায়িত রয়েছে। এখন অগুনতি ভক্ত, অনুরাগী শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন সাধারণ মানুষ। পৌঁছে গিয়েছেন বিশিষ্টরাও। 
রবীন্দ্র সদনে উপস্থিত রয়েছেন রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, কলকাতা পুরসভার চেয়ারপার্সন মালা রায়। সন্ধ্যা দীর্ঘদিন রাজ্য সঙ্গীত অ্যাকাডেমির সভাপতি ছিলেন। 

 

 

Deep Sidhu: ২৬শে লালকেল্লা হিংসায় অন্যতম অভিযুক্ত, সেই দীপ সিধু দুর্ঘটনায় প্রয়াত ...


২৬ জানুয়ারি সন্ধেবেলা আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়। জানা গিয়েছে, শৌচালয়ে পড়ে গিয়ে চোট পান। পরের দিন গ্রিন করিডোর করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় শিল্পীকে। সেখানে উডবার্ন বিভাগে ভর্তি করা হয়। জানা গিয়েছিল, ফুসফুসে সংক্রমণ হয়েছে তাঁর। এর পর পরীক্ষা করে কোভিড ধরা পড়ে। তার পরেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হবে তাঁকে।
তখন থেকে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। কোভিড থেকে সেরে উঠেছিলেন। তবে ফুসফুসে সংক্রমণ ভোগাচ্ছিল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই তাঁর শরীর ক্রমশ খারাপ হতে থাকে। রক্তচাপ কমতে থাকে। ভোগাচ্ছিল পেটের যন্ত্রণা। আইসিইউ–তে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। পরে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। 

আকর্ষণীয় খবর