আজকাল ওয়েবডেস্ক: এবার বেসরকারি ল্যাবরেটরিতেও করা যাবে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট, নির্দেশ দিল রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর। দ্রুত করোনা নির্ণয়ের জন্যই এই সিদ্ধান্ত। স্বাস্থ্য দপ্তরের অধিকর্তা চিকিৎসক অজয় চক্রবর্তী বলেন, বেসরকারি ক্ষেত্রেও এবার এই পরীক্ষা করা যাবে। 
এর আগে শুধুমাত্র সরকারি ক্ষেত্রেই এই পরীক্ষা করা হত। রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে যাওয়ার পর বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে যুক্ত চিকিৎসক ছাড়াও প্রাক্তন সরকারি চিকিৎসকরাও এই পরীক্ষা যাতে বেসরকারি সংস্থাগুলি করতে পারে সে বিষয়ে সরব হন। স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনের প্যাথলজি বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক চিকিৎসক প্রণবকুমার ভট্টাচার্য বলেন, খুব ভাল সিদ্ধান্ত। এই টেস্টে পজিটিভ এলে সেটা পজিটিভ। কিন্তু নেগেটিভ এলে চিকিৎসকরা আরটি-পিসিআর টেস্ট করিয়ে নিতে পারবেন। এতে সময়ও বাঁচবে। কারণ, এই টেস্টে সময় লাগে ৩০ মিনিট। কিন্তু আরটি-পিসিআরের ক্ষেত্রে সময় লাগে পাঁচ ঘণ্টার কাছাকাছি। যেটা এই পরিস্থিতিতে আরও বেশি সময় লাগছে। কারণ, টেস্টের সংখ্যার চাপ। সব থেকে বড় কথা, যাদের ক্ষেত্রে পজিটিভ দেখাবে তাঁদের দ্রুত চিকিৎসা শুরু করে দেওয়া যাবে। 
একই মত পিয়ারলেস হাসপাতালের ক্লিনিক্যাল ডাইরেক্টর, রিসার্চ, চিকিৎসক শুভ্রজ্যোতি ভৌমিকের। তাঁর কথায়, দেরিতে হলেও সরকারের এই সিদ্ধান্ত খুবই কার্যকরী।
 

জনপ্রিয়

Back To Top