Calcutta University: ‌অনলাইনে পরীক্ষার দাবিতে ফের বিক্ষোভ পড়ুয়াদের

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অনলাইনে পরীক্ষা নিতে হবে।

এই দাবিতে ফের উত্তাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। পড়ুয়াদের বিক্ষোভের জেরে তুলকালাম পরিস্থিতি তৈরি হল কলেজ স্ট্রিট চত্বরে। একই দাবিতে সংস্কৃত কলেজেও পড়ুয়ারা  বিক্ষোভ জারি রেখেছে। ঘেরাও করা হয়েছে কলেজের উপাচার্যকে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, পরীক্ষা অনলাইনে হবে না কি অফলাইনে, সেই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আগামী ৩ জুন সিন্ডিকেটের বৈঠকে।
অফলাইনে পরীক্ষা হবে যাদবপুর এবং রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে, এই আশঙ্কা করে বিক্ষোভে নেমেছেন পড়ুয়াদের একাংশ। গত শনিবার ও সোমবার দুই দফা বিক্ষোভের পর শুক্রবারও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে হাজির হয়ে বিক্ষোভ দেখান পড়ুয়ারা। অধীনস্থ কলেজগুলির অধ্যক্ষদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই বৈঠক শেষে অধ্যক্ষেরা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর থেকে বেরোনোর সময় তাঁদের গাড়ি ঘিরেও বিক্ষোভ চলে। পড়ুয়াদের বক্তব্য, করোনাকালে প্রায় দু’বছর ধরে অনলাইনে ক্লাস হয়েছে। অফলাইনে ক্লাস হয়েছে মাত্র দেড় মাস। পাঠ্যক্রম এখনও শেষ না হওয়ায় তাঁরা অনলাইন পরীক্ষার দাবি জানিয়েছেন। বিক্ষোভকারী পড়ুয়াদের ১১ জনের প্রতিনিধি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। যদিও উপাচার্য তাঁদের সঙ্গে দেখা করেননি। উল্টে বিক্ষোভকারী পড়ুয়াদের সমস্ত দাবিদাওয়া উল্লেখ করে চিঠি দিতে বলেছেন তিনি। 
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, বৈঠকে ৫০ শতাংশ কলেজের অধ্যক্ষ অফলাইন পরীক্ষার পক্ষে রায় দিয়েছেন। পরীক্ষা অফলাইনে না অনলাইনে, এ নিয়ে গত ২০ মে পিজি এবং ইউজি কাউন্সিলেরও বৈঠক হয়েছিল। এই দুই বৈঠকের বিষয়বস্তু আগামী ৩ জুন সিন্ডিকেটের বৈঠকে তুলে ধরা হবে। সেই বৈঠকেই ঠিক হবে পরীক্ষা অনলাইনে না অফলাইনে হবে। 


 

আকর্ষণীয় খবর