আজকালের প্রতিবেদন: বাড়ি থেকে মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড আনতে ভুলে গিয়েছিল শিলাজিৎ দাস। সিট পড়েছিল বিটি  রোডের আর্য বিকাশ স্কুলে। শিলাজিৎ কর্তব্যরত পুলিশের কাছে জানায়, সে ভুলে গেছে অ্যাডমিট আনতে। সে–‌সময় ডিউটিতে ছিলেন চিৎপুর থানার সার্জেন্ট দিবাকর সরকার। সময় নষ্ট না করে তৎপর দিবাকরবাবু মোটরবাইক নিয়ে ছোটেন শিলাজিতের বাড়ি বরানগরের মণ্ডলপাড়ায়। বাড়িতে আত্মীয়স্বজনেরা দিবাকরবাবুকে জানান, ‘‌বাড়িতে কেউ নেই, ওর মা বাজারে গেছে’‌।‌ শিলাজিতের মাকে ডেকে পাঠানো হয়। তিনি অ্যাডমিট কার্ড ও কার্ডবোর্ড তুলে দেন দিবাকরবাবুর হাতে। দিবাকরবাবু সোজা পৌঁছোন পরীক্ষা কেন্দ্রে। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি জানান। শিলাজিতের হাতে তুলে দেওয়া হয় অ্যাডমিট। এদিন ছিল জীবনবিজ্ঞান পরীক্ষা। তঁার কর্তব্যপরায়ণতায় মুগ্ধ সহকর্মীরা। এদিকে, বুধবারই মহারাজা কাশিমবাজার হাই স্কুলের পরীক্ষার্থী সোনাকুমার জয়সওয়াল তার পরীক্ষা কেন্দ্র পার্ক ইনস্টিটিউশন ফর গার্লসে পরীক্ষা দিতে গিয়ে দেখে, সঙ্গে অ্যাডমিট কার্ড নেই। এই কেন্দ্রে দায়িত্বে ছিলেন উল্টোডাঙা থানার পুলিশকর্মী মহম্মদ নাদিম ইসলাম। তিনি নিজে ওই ছাত্রীকে বাইকে বসিয়ে লকগেট রোডে তার বাড়িতে নিয়ে যান। অ্যাডমিট কার্ড–সহ তাকে পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগেই পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দেন।

জনপ্রিয়

Back To Top