আজকালের প্রতিবেদন: নিজেদের মনের ভাবনা ছবির মাধ্যমে ফুটিয়ে তুললেন পাভলভ হাসপাতালের আবাসিকেরা। তাঁদের আঁকা ছবির প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। চলবে ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ‌হাসপাতালের বিভিন্ন দেওয়ালে, কেউ কাগজে, কেউ আবার কাপড়ের ওপর লাল, নীল, সাদা, কালো রঙ তুলির টানে ভরিয়ে দিয়েছেন অপূর্ব মায়াবি বর্ণনায়। হাসপাতালের বেড ও বাইরে শুকনো গাছ ব্যবহার করে তাঁরা ফুটিয়ে তুলেছেন তাঁদের শৈল্পিক সত্ত্বা। বাড়ি, ঘর, নদী, আকাশ, পশু–পাখি, মানুষের ছবি দিয়ে প্রায় ৪০ জন আবাসিক সৌন্দর্যময় করে তুলেছেন গোটা পাভলভ। প্রশিক্ষণে সাহায্য করেছেন চিত্রশিল্পী শ্রীকান্ত পাল।
এই সমস্ত মনোরোগীরা হাসপাতালে দীর্ঘদিন ধরেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। এখন তাঁদের কেউ পুরো সুস্থ কেউ আবার সুস্থতার পথে। আর পাঁচজনের মতোই সুস্থ ও স্বাভাবিক। তবুও পরিজনদের কাছে আজ তাঁরা ব্রাত্য। হাসপাতালের সুপার ডাঃ গণেশ প্রসাদ বাড়িয়ে দেন সহযোগিতার হাত। তাঁরা এখন হাসপাতালেই থাকেন। পাশাপাশি বিভিন্ন কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়ে অর্থ উপার্জনও করছেন। তাঁদের সঙ্গে রয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘‌অঞ্জলি’‌। ইতিমধ্যে হাসপাতালের ১৬ জন রোগী ভোটার কার্ড পেয়েছেন। আরও ৪০ জন দ্রুত পাবেন বলে জানিয়েছেন সুপার। হাসপাতালের চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য দপ্তরের উপদেষ্টা ডাঃ বিশ্বরঞ্জন শতপথি, ক্যালকাটা ন্যাশনাল মেডিক্যালের অধ্যক্ষ ডাঃ অজয় রায়, অঞ্জলি সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা অধিকর্তা রত্নাবলী রায়, শুক্লা দাশ বড়ুয়া–সহ অন্যান্য চিকিৎসক ও রোগী। ডাঃ প্রসাদ জানিয়েছেন, ‘‌এঁদের মূল স্রোতে আনতে সবরকম ভাবে সহায়তা করব। আয়ের সংস্থান করে তাঁরা যাতে নিজেরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারেন সেই চেষ্টা সবসময় থাকবে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top