TMC: তারুণ্যের জয়গানে বিশ্বাসী না, তৃণমূলের পথ ‘ওল্ড ইজ গোল্ড’!

আজকাল ওয়েবডেস্ক: তৃণমূলে (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সেই অভিষেক ব্যানার্জিই (Avishek Banerjee)।

কিন্তু আগের মতো কি একার হাতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা রইল তাঁর? জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকে যেভাবে দায়িত্ব বণ্টন করলেন মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee), সেদিকে তাকিয়ে কিন্তু এমন কথা বলা যাবে না। তরুণ প্রজন্মের প্রয়োজনীয়তা অস্বীকার করেননি নেত্রী, তবে দলের রাশ যে বর্ষীয়ানদের হাতেই থাকবে তা স্পষ্ট হয়ে গেছে। এমনকী, ‘ওল্ড ইজ গোল্ড’ প্রবচনটাও আওড়েছেন মমতা। 

 

আরও পড়ুন: দীর্ঘদিনের লড়াই শেষ! প্রয়াত রাজ্যের প্রবীণ মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে 


সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ঠিকই, কিন্তু তাঁর সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে সুব্রত বক্সী, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, অরূপ বিশ্বাসদের। রয়েছেন পার্থ চ্যাটার্জিও (Partha Chatterjee)। পার্থ, অরূপ এবং চন্দ্রিমার হাতেই থাকছে চেক সই করার ক্ষমতা। এর সঙ্গে সমন্বয় সাধনের জন্য জুড়ে দেওয়া হয়েছে ফিরহাদ হাকিমকে (Firhad Hakim)। বার্তাটা পরিষ্কার, দলের রাশ থাকছে প্রবীণদের হাতেই। তারুণ্যের জয়গান গাওয়ার কোনও অভিপ্রায় নেই তৃণমূলের। 
মমতা ব্যানার্জি জানিয়েছেন, বাইরের রাজ্যগুলোর কাজ করবেন অভিষেক। অর্থাৎ দলের সাংগঠনিক বিষয়ে তাঁকে মাথা গলাতে দেওয়া হবে না। সাংসদ হিসেবে ডায়মন্ড হারবারের কাজ করবেন এবং অন্যান্য রাজ্যে সংগঠন বাড়ানোর কাজ করবেন অভিষেক। সেই সঙ্গে ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরকেও (Prashant Kishore) আর খুব একটা ক্ষমতা দিতে চাইছে না তৃণমূল বলে খবর।       
 

আকর্ষণীয় খবর