রিনা ভট্টাচার্য: ‌‌‌‌শিয়ালদা উড়ালপুল (‌‌‌‌‌বিদ্যাপতি সেতু)‌–এর ওপর দিয়ে ট্রাম চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এই উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পর একটি অন্তর্বর্তী রিপোর্ট দিয়েছে ইঞ্জিনিয়ারিং কনসালটেন্সি সংস্থা স্টুপ। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে কেএমডিএ কর্তৃপক্ষ এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভাবনাচিন্তা করছেন। স্টুপ–কে দিয়ে ৪৪ বছরের পুরনো শিয়ালদা উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাচ্ছে কেএমডিএ। 
নবান্ন সুত্রে খবর, এই সংস্থা যে অন্তর্বর্তী রিপোর্ট দিয়েছে, তাতে তারা জানিয়েছে, উড়ালপুল ভারী হয়ে গেছে। হালকা করতে গেলে ফুটপাথ, ট্রামলাইন তুলে দিতে হবে। বিটুমিন দেওয়া অংশগুলি তুলে ফেলতে হবে। সরিয়ে ফেলতে হবে পিলার। এই উড়ালপুল হালকা না করলে ভবিষ্যতে ভারী যান–চলাচলের জন্য বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে। নগরোন্নয়ন দপ্তরের প্রধান সচিব সুব্রত গুপ্ত বলেন, ‘‌আমার কাছে এখনও কোনও রিপোর্ট জমা পড়েনি। তবে এটা ঠিক, উড়ালপুলের কিছু কংক্রিটজনিত সমস্যা রয়েছে। সেক্ষেত্রে উড়ালপুলকে হালকা করতে হবে। বিভিন্নভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা চলছে। ফাইনাল রিপোর্ট এলে ভবিষ্যতে ভারী যানবাহন নিয়ন্ত্রণের কথা ভাবা যাবে।’‌ 
প্রসঙ্গত, শিয়ালদা উড়ালপুলের ১০০ মিটার অংশ জুড়ে  স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ শুরু হয় ১৫ আগস্ট। তিনদিন বন্ধ ছিল ওই উড়ালপুল। বিভিন্ন ওজনের গাড়ি দাঁড় করিয়ে চলে স্বাস্থ্য পরীক্ষা। ৯টি সেন্সর লাগানো হয়। শুধু শিয়ালদা উড়ালপুলই নয়, মাঝেরহাটে দুর্ঘটনার পর থেকেই রাজ্য সরকার বিভিন্ন  উড়ালপুলের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। হাওড়ার বঙ্কিম সেতু–সহ ইতিমধ্যেই বেশ কিছু সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়ে গেছে। ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top