আজকালের প্রতিবেদন- এনআরসি, ক্যা–এর বিরোধিতায় পথে নামল কলকাতা। অংশ নিলেন সমাজের বিশিষ্টরা থেকে শুরু করে আইনজীবী, পড়ুয়ারা।
এদিন ছিল প্রেসিডেন্স বিশ্ববিদ্যালয় (‌‌কলেজ‌)‌‌–এর প্রতিষ্ঠা দিবস। এনআরসি, ক্যা বাতিলের দাবিতে সেখানে হল স্বাক্ষর সংগ্রহ। অংশ নিলেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বর্তমান এবং প্রাক্তন পড়ুয়ারা। প্রাক্তনীদের মধ্যে ছিলেন নাট্যব্যক্তিত্ব বিভাস চক্রবর্তী, রাজ্যের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্র সচিব প্রসাদরঞ্জন রায়, প্রতিষ্ঠানের ভূগোলের প্রাক্তন অধ্যাপক প্রশান্ত রায়–সহ বিশিষ্টরা।
বিভাসবাবু বলেন, ‘‌জনগণের বিশ্বাস, মতামত নিয়ে আইন করার দরকার ছিল। গণভোট হোক।’‌ প্রসাদরঞ্জন রায় বলেন, ‘‌সিএএ, এনআরসি গোটা ব্যাপারটা তাড়াহুড়ো করে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।’‌
সেন্ট পল্‌স গির্জা থেকে গান্ধীমূর্তি পর্যন্ত হাঁটলেন বঙ্গীয় খ্রিস্টীয় পরিষেবা ও বেঙ্গল খ্রিস্টান কাউন্সিল। কলকাতা হাইকোর্ট থেকে সিটি সিভিল কোর্ট পর্যন্ত আইনজীবীরা মিছিল করেন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখায় আইসা। রাতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা দেওয়াল লিখনে প্রতিবাদ জানান।
সারা বাংলা এনআরসি বিরোধী নাগরিক কমিটির কলকাতা জেলা পার্ক সার্কাস, মেটিয়াবুরুজ, হাজরা, বেহালা, শ্যামবাজার, ঢাকুরিয়া, জাকারিয়া স্ট্রিট, রাজাবাজার, চাঁদনি চক–‌সহ ৩০টি জায়গায় মানববন্ধন করে। সংগঠনের সম্পাদক অংশুমান রায়ের  হুঁশিয়ারি, ‘‌আইন বাতিল না হলে আরও বড়সড় আন্দোলন হবে।’‌

এনআরসি, ক্যা, এনপিআরের প্রতিবাদে এসইউসি–র মানববন্ধন। করুণাময়ীতে। ছবি: বিজয় সেনগুপ্ত

জনপ্রিয়

Back To Top