আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌রাজনীতিতে বিতর্ক তৈরি করেই টিকে থাকতে চান রাজ্য বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। কয়েকদিন আগে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ্যে সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমকে ‘‌আইএসআই এজেন্ট’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। এবার সেই বিতর্কে নয়া মোড়। কুরুচিকর মন্তব্যের জন্য এবার সায়ন্তন বসুকে আইনি নোটিশ পাঠালেন মহম্মদ সেলিম। সূত্রের খবর, আইনি নোটিশে তিনি জানিয়েছেন, ১৫ দিনের মধ্যে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু ক্ষমা না চাইলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন সেলিম। সায়ন্তন বসুর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করারও হুমকি দিয়েছেন প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ।
গত ৫ অক্টোবর রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর মন্তব্য উদ্ধৃত করে একটি টুইট করেছিলেন সেলিম। তিনি লিখেছিলেন, ‘‌বিজেপিকে অসভ্য ও বর্বরদের দল বলতেন কমরেড জ্যোতি বসু। রাজ্যে বিজেপির বর্বরতাকে আটকাতে হলে এগিয়ে আসতে হবে সাধারণ মানুষকে। আমরা স্বামীজি ও রামকৃষ্ণকে পড়েছি। ওঁনারা কখনও বলেননি, নিজের ধর্মকে ভালোবাসো আর অন্য ধর্মকে ধ্বংস করে দাও।’‌
ওই টুইটের পর তাঁর বিরুদ্ধে টুইটার কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিক অভিযোগ জমা পড়ে। টুইটারের বিধি ভাঙার দায়ে সাময়িকভাবে সাসপেন্ড করে দেওয়া হয় মহম্মদ সেলিমের অ্যাকাউন্ট। এই বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু বলেন, ‘‌আইএসআই এজেন্ট হিসেবে কাজ করছেন সেলিম। ওঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্লক করে ঠিক কাজ করেছে কর্তৃপক্ষ।’
‘‌আইএসআই এজেন্ট’ মন্তব্যের কারণেই সায়ন্তন বসুকে আইনি নোটিশ পাঠালেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম।‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top