সব্যসাচী সরকার- ম্যাজিক মাশরুমের ছদ্মনাম ‘‌শ্রুম’‌!‌ নেশাড়ুদের জগতে একেবারে বিদেশি অতিথি!‌ ছদ্মনামের বহরেই ডিস্ক জকির হোয়াটসঅ্যাপে ঝঁাপ দেয় ধনী ড্রাগ সমঝদারেরা। 
কলকাতায় ম্যাজিক মাশরুম উদ্ধারের পর আপাতত নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো সূত্র–‌সন্ধান করছে বড়লোকের পার্টি এবং ডিস্ক জকিদের যোগসাজশের। গত বছর কয়েকটি নাইট ক্লাবে খদ্দের সেজে কন্ট্রোল ব্যুরোর গোয়েন্দারা হানা দিয়েছিলেন। গোয়েন্দাদের অভিজ্ঞতা বলছে, মাদক পাচারকারী এবং গ্রহণকারীদের মধ্যে নিরন্তর যোগসূত্র রাখে নাইট ক্লাব আর ডিস্ক জকিদের একটা বড় অংশ। অনেক ক্ষেত্রে ধনী নেশাড়ুরা অগ্রিম টাকাও দিয়ে থাকে। মূলত পার্টিতে গিয়ে মদ্যপান এবং তার পর ড্রাগ সেবন কলকাতায় বহু জায়গাতেই চলছে। এবং যঁারা ড্রাগ সরবরাহকারী আর যঁারা কিনছেন, তঁাদের মধ্যে ‘‌কোড’‌ ভাষায় তথ্য আদান‌প্রদান হয়ে থাকে।
চরস যেমন চেরি, হাশিস যেমন হ্যাস, মালানা চরস যেমন ক্যাডবেরি, তেমনই লজেন্স, পুসিক্যাট, ভেজিটেবল ইত্যাদি নানান ছদ্মনামে ড্রাগ বিক্রি হয়ে থাকে। গোয়েন্দাদের নজর এখন ধৃত ৩ জনের হোয়াটসঅ্যাপে। যাবতীয় যোগাযোগ এবং স্থান–‌কাল–‌পাত্রের সন্ধান হোয়াটসঅ্যাপেই হয়ে যায়। সেই সঙ্গে রয়েছে কিছু মাথা–‌খাটিয়ে–‌তৈরি অ্যাপ। অ্যাপ–‌নির্ভর সময়ে ড্রাগ পৌঁছে যায় একেবারে নির্দিষ্ট ক্রেতার কাছে।
কন্ট্রোল ব্যুরোর গোয়েন্দারা বলছেন, কলকাতায় ম্যাজিক মাশরুম ধরার বিষয়টি একেবারে নতুন এবং এর পেছনে রয়েছে ‘‌অর্গানাইজড ক্রাইম সিন্ডিকেট’‌।
সিন্ডিকেটে জড়িয়ে যাচ্ছে মেধাবী ছাত্র‌ছাত্রী থেকে শুরু করে অনেক বড় বড় মাথা। দেখা যাচ্ছে, মাশরুম–‌কাণ্ডে ধৃত বিবেক, ঋষভ, দীপরা পরস্পরকে দীর্ঘ দিন ধরেই চিনত। এক্সট্যাসি, এমডিএমএ, বিভিন্ন ধরনের ড্রাগ–‌মেশানো লজেন্স তো চলতই, এখন বাজারে পড়ল মাশরুম। মাশরুমকে ইতিমধ্যেই কোড ভাষায় বলা হয় ‘‌শ্রুম’‌। ফলে চট করে ধরা পড়ে গেলেও, ‘‌শ্রুম’‌ ডিকোডিং করে ম্যাজিক মাশরুমে পৌঁছনো খুব সহজ নয়!‌
গোয়েন্দারা বলছেন, উচ্চ স্তরের ড্রাগ নেওয়া হালফিলের ফ্যাশন হয়ে দঁাড়িয়েছে ধনী মহলে। দামি গাড়ি, দামি হোটেলে রাতপার্টি, সেই সঙ্গে রেভ পার্টিতে অতিথিদের (‌যঁারা ড্রাগরসিক)‌ নিত্য–‌নতুন সংগ্রহ করা ড্রাগ খাওয়ানো একেবারে স্টেটাস সিম্বল!‌ এই মোহ ও পিঠ চাপড়ানো পেতেই যে যেখান থেকে পারছে ড্রাগ সংগ্রহ করছে। সমস্যা এই, টাকার অঙ্ক কোনও বিষয়ই নয়। বিষয় হল, কোথা থেকে কে এনে দিচ্ছে।
‘‌শ্রুম’‌ শুনতে শ্রুতিমধুর, বিষ অতি ভয়ঙ্কর!‌‌

‌ম্যাজিক মাশরুম পাচারে পাকড়াও ৩। তাঁদেরই একজন বিবেক

জনপ্রিয়

Back To Top