আজকালের প্রতিবেদন

 

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে বক্তৃতা করার জন্য আমন্ত্রণ জানাল ইংল্যান্ডের অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেটিং সোসাইটি। মমতা ওই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন বলে সূত্রের খবর। ২০২১ সালের ৯ জানুয়ারি থেকে ১৫ মার্চের মধ্যে কোনও একটি দিন মমতাকে বক্তৃতা করতে অনুরোধ করা হয়েছে। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আবহে তিনি অক্সফোর্ড যাবেন নাকি ‘ভার্চুয়াল’ বক্তৃতা করবেন, তা এখনও ঠিক হয়নি। তখনকার পরিস্থিতি বুঝে সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সূত্রের খবর, বক্তৃতায় বাংলার উন্নয়নের কথা তুলে ধরবেন মুখ্যমন্ত্রী। 
প্রসঙ্গত, সারা পৃথিবীর মধ্যে মমতা তৃতীয় মহিলা রাজনীতিবিদ, যাঁকে অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেটিং সোসাইটি বক্তৃতা করতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এর আগে ওই আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন মার্গারেট থ্যাচার এবং থেরেসা মে। অক্সফোর্ড ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট এল ভাদলামানি জানিয়েছেন, রাজনীতিবিদ এবং প্রশাসক হিসেবে মমতা সারা পৃথিবীর কাছে উদাহরণ তৈরি করেছেন। তাই তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। মমতা সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন। অক্সফোর্ড ইউনিয়ন স্থাপিত হয়েছিল ১৮২৩ সালে। সংগঠনের ২০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ২০২১ থেকে শুরু হবে বিভিন্ন স্মারক বক্তৃতা। সেই বক্তাদের মধ্যেই থাকবেন মমতা। সোসাইটির আবেদনে সাড়া দিয়ে এর আগে বক্তৃতা করেছেন রোনাল্ড রেগন, জিমি কার্টার, রিচার্ড নিক্সন, উইনস্টন চার্চিল বিল ক্লিন্টনের মতো রাষ্ট্রনায়করা। ঘটনাচক্রে, এর আগে ২০১৭ সালেও অক্সফোর্ড ইউনিয়নের আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন মমতা। ২০১০ সালে রেলমন্ত্রী থাকার সময় কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বক্তৃতা করার আমন্ত্রণ পান তিনি। কিন্তু তখন রাজ্যে তৎকালীন বামশাসনে বিভিন্ন জেলায় হিংসাত্মক ঘটনা ঘটতে থাকায় মমতা সেই সফর বাতিল করেন। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ইতিমধ্যেই মমতা রাষ্ট্রপুঞ্জ এবং ইউনেস্কোর তরফে বিশ্বসেরার শিরোপা পেয়েছেন। তাঁর মস্তিষ্কপ্রসূত ‘সবুজ সাথী’ এবং ‘কন্যাশ্রী’ প্রকল্প সারা পৃথিবীর মধ্যে সেরার পুরস্কার পেয়েছিল। রাজ্যের মানুষের তরফে সেই সম্মান মমতা নিজে গিয়ে গ্রহণ করেছিলেন। 

জনপ্রিয়

Back To Top