আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফের বৈঠকে বসলেন রাজ্যপাল। সোমবার বেলা ১১.৩০টা থেকে ১২.৩০ পর্যন্ত মমতা ব্যানার্জিকে সময় দিয়েছিলেন জগদীপ ধনকড়। মুখ্যমন্ত্রীও পূর্বনির্ধারিত সময় অনুসারেই রাজভবনে চলে আসেন। সৌজন্যতার খাতিরে রাজ্যপালের জন্য নিয়ে এলেন ফুল–মিষ্টি। তবে বৈঠকে ঠিক কোন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা নিয়ে এখনও স্পষ্ট নয়।
বৈঠকে রাজ্যের একাধিক বিষয়ের উপর আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। কখনও যাদবপুর আবার কখনও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়েন রাজ্যপাল। তার ফলে রাজ্য–রাজ্যপালের সম্পর্কের ক্রমশই অবনতি হয়েছে। সম্প্রতি কোচবিহারের পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে জগদীপ ধনকড় আমন্ত্রিত না হওয়ার ঘটনায় দু’পক্ষের সম্পর্কে আরও দূরত্ব বাড়ে।
চলতি মাসের শুরুতেই রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠক করেন পরিষদীয় মন্ত্রী তথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। বৈঠক থেকে বেরিয়ে পার্থবাবু জানিয়েছিলেন, সৌজন্যের খাতিরেই সেখানে গিয়েছিলেন তিনি। তবে এদিনের মুখ্যমন্ত্রী–রাজ্যপাল সাক্ষাৎ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, শিক্ষা–আইনশৃঙ্খলা এবং রাজ্যের সাম্প্রতিক নানা ঘটনাক্রম নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে আগেই চায়ের টেবিলে আমন্ত্রণ জানান রাজ্যপাল। তাছাড়া বিভিন্ন আটকে থাকা বিল যেমন– এসসি এসটি বিল নিয়েও তাঁর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর কথা হতে পারে। এর আগে রাজ্যপাল ছাড়পত্র না দেওয়ায় রাজ্যে তফশিলি জাতি–উপজাতির জন্য আলাদা কমিশন গঠনের বিলটি বিধানসভায় পেশ করতে পারেনি সরকার।

জনপ্রিয়

Back To Top