আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শুধু ইংরেজি, হিন্দি আর গুজরাটি নয়, বাংলা ভাষাতেও চালু করতে হবে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের প্রশ্নপত্র। বৃহস্পতিবার তৃণমূল ভবনে দলের সাংগঠনিক পর্যালোচনা বৈঠক শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে এই দাবিই তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি বললেন, ‘‌আমার গুজরাটি ভাষা নিয়ে কোনও আপত্তি নেই। ছাত্রছাত্রীরা অন্যান্য ভাষা শিখছে সেটা তো আনন্দের কথা। কিন্তু বাংলাতেও হোক জয়েন্টের প্রশ্নপত্র। কারণ সবাই তো ইংরেজি জানে না। আমাদের শিক্ষামন্ত্রীও জাতীয় পরীক্ষক সংগঠন বা এনটিএ–কে এই ইস্যুতে চিঠি লিখে বাংলায় পরীক্ষা নিতে বলেছেন।’‌ একইসঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, ‌মারাঠি বা অন্যান্য আঞ্চলিক ভাষাতেও জয়েন্ট এন্ট্রান্সের প্রশ্নপত্র কেন তৈরি করা হবে না।
দিন কয়েক আগে অমিত শাহ–র ‘‌এক দেশ, এক ভাষা’‌, তত্ত্বে হিন্দিকে জাতীয় ভাষা করার ইঙ্গিতে তেতে উঠেছিল দক্ষিণ ভারত। শুধু এনডিএ বিরোধীরাই নয়, দক্ষিণ ভারতের এনডিএ শরিক দলগুলিও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যের চরম বিরোধিতা করে। চাপে পড়ে ঢোঁক গিলতে বাধ্য হন অমিত শাহ।
বৃহস্পতিবার সেকথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মমতা বলেছেন, ‘‌তামিলনাড়ুতেও আপনারা জানেন কদিন আগে ভাষা বিক্ষোভ হয়েছিল। আমাদের দেশে বহু রাজ্য। বহু আঞ্চলিক ভাষা আছে। কিন্তু আমরা সবাই এক। একতাই আমাদের শক্তি। দিনের শেষে একত্র ভারতই শেষ কথা।’‌ এদিন তফসিলি জাতি এবং তফসিলি উপজাতি বিধায়কদের নিয়েই মূলত বৈঠক করেন মমতা। তৃণমূলের আগামী কয়েক দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে জানালেন আগামী ১১ তারিখ ব্লকে ব্লকে প্রতিবাদ কর্মসূচি রয়েছে। ধর্মের ভিত্তিতে এনআরসি–র বিরোধিতা করেই যাবে তাঁর দল, বললেন মমতা।
ছবি:‌ এএনআই

জনপ্রিয়

Back To Top