আজকালের প্রতিবেদন: তৃণমূলের লোকেদের সঙ্গে বিজেপি যোগাযোগ করছে।  আমার দৃঢ় ধারণা, দু’‌একজনের প্রার্থী হওয়ার লোভ আছে। যেতে পারেন। বুধবার কালীঘটে নিজের বাড়িতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘‌এসএমএস আসছে, মোদির সঙ্গে দোস্তি করার। ওঁর সঙ্গে দোস্তি করতে যাব কেন?‌ ফোনই বন্ধ করে দিয়েছি। যঁারা বিজেপি–‌তে যাচ্ছেন, তাঁরা একদিন বুঝতে পারবেন, ওই দলের আদর্শটা কী। আই ডোন্ট কেয়ার।’‌ এদিন মমতা ৪২ জন প্রার্থীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বৈঠক যে খুবই ভাল হয়েছে, তা অনেকেই সাংবাদিকদের বলেছেন। মানস ভুঁইয়া জানিয়েছেন, ‘‌নতুন ভারত তৈরি করতে হবে। দেশের ঐক্য ও সম্প্রীতি ফিরিয়ে আনতে হবে। নেত্রী যেভাবে নেতৃত্ব দেবেন সেভাবে কাজ করব।’‌ কল্যাণ ব্যানার্জি বলেন, ‘এবার আরও বেশি ভোটে জিতব।’ প্রার্থীদের সঙ্গে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করে মমতা সাংবাদিকদের বলেন, ‘‌বিজেপি–‌র কোনও সংস্কৃতি নেই। মনীষীদের অপমান করা হচ্ছে। কুরুচিকর ভাষা ব্যবহার করছেন নেতারা। যা ‌বাংলার সংস্কৃতির সঙ্গে মেলে না। এঁরা কী করতে চাইছেন, তা বোঝা যাচ্ছে না।’‌ আসানসোলে প্রার্থী হয়েছেন মুনমুন সেন। বাঁকুড়া থেকে দাঁড়িয়েছেন সুব্রত মুখার্জি। মুনমুন সম্পর্কে বিজেপি যে সব অভিযোগ করেছে, তার জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‌মুনমুনকে আমরা বঙ্গভূষণ সম্মান দিয়েছি। সুচিত্রা সেনের মেয়ে। বাবুল সুপ্রিয় কোনও সংস্কৃতি জানেন না। মুনমুনের কাছে বাবুল সুপ্রিয় হারবেন, জামানত জব্দ হবে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top