আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গতকাল ‌আনন্দ পটবর্ধনের ‘‌রাম কে নাম’ ছবির প্রদর্শন ঘিরে উত্তাল হয়েছিল হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়। গ্রেপ্তার করা হয়েছে ছয়জন ছাত্রকে। ঘটনাটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে ‌সরব হয়েছে দেশের বেশ কয়েকটি নামজাদা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কলকাতার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরাও নিজেদের মতো করে প্রতিবাদ জানানোর কথা ভাবছে। হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো তাঁরাও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘‌রাম কে নাম’ ছবিটি দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগের ছাত্রছাত্রীরাই মূলত এই উদ্যোগ নিয়েছেন। এই প্রতিবাদ মঞ্চের আয়োজক অভ্রুদ্যুতি দাস জানিয়েছেন, ‘‌হায়দরাবাদের ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে শুধুমাত্র ছাত্রছাত্রীদের ওপর আত্রমণের ঘটনাই নয়। চলচ্চিত্র জগতের ওপরও আঘাত। তাই ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগের ছাত্রছাত্রী হিসাবে আমাদের এই প্রতিবাদ মঞ্চ। এই মঞ্চের সঙ্গে কোনও ছাত্র সংগঠন জড়িয়ে নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের পক্ষ থেকেই এই মঞ্চের আয়োজন করা হয়েছে। ছবিটির প্রদর্শনীর পর আমরা একটি আলোচনা সভাও আয়োজন করার কথা ভাবছি।’‌   ‌
আগে থেকে অনুমতি নিয়ে রাখা সত্বেও শেষ মুহুর্তে অডিটরিয়ামে ডকুমেন্টারি প্রদর্শনের অনুমতি বাতিল করে হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন অব স্টুডেন্ট। অডিটরিয়াম ছেড়ে সোশিওলজি ডিপার্টমেন্টের লেকচার হলেই আনন্দ পটবর্ধনের ‘রাম কে নাম’ ডকুফিল্মটির প্রদর্শনী শুরু করে হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসা ইউনিট। তখনই শুরু হয় পুলিশি আক্রমণ। বন্ধ করে দেওয়া হয় ছবিটির প্রদর্শন। বছর তিনেক আগে এরকমই এক প্রদর্শনীকে কেন্দ্র করে এই ক্যাম্পাসেই রোহিত ভেমুলা ও তাঁর সাথিদের ওপর আক্রমণ চালিয়েছিল দক্ষিণপন্থি সংগঠনের ছাত্রছাত্রীরা। এবার সরাসরি পুলিশ!

জনপ্রিয়

Back To Top