তরুণ চক্রবর্তী: অ্যাপ নিয়ে কিছু সমস্যা থাকলেও, নিউ নর্মাল পরিস্থিতিতে নির্বিঘ্নেই শুরু হল কলকাতা মেট্রোর যাত্রী–‌পরিষেবা। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই যাত্রীরা এদিন নোয়াপাড়া–‌কবি সুভাষ এবং সল্টলেক স্টেডিয়াম ও সেক্টর ফাইভ রুটে মেট্রো–‌সফর করেন। কোথাও তেমন ভিড় চোখে পড়েনি। মেট্রোর জিএম মনোজ যোশি জানিয়েছেন, লোকাল ট্রেন চালুর আগে আরও বেশি যাত্রী পরিবহণের সুবিধে দেওয়ার বিষয়টি তঁাদের বিবেচনায় রয়েছে।
সোমবার সকাল ৮টায় দমদম থেকে প্রথম বগিতে মাত্র ১৪ জন যাত্রীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করেন নিউ নর্মালের প্রথম মেট্রোচালক জয়ন্ত বসু। আবার সকাল ৯টায় কবি সুভাষ থেকে শেষ বগিতে মাত্র ৬ জন যাত্রীকে নিয়ে দমদমে ঢোকে এদিনের প্রথম মেট্রো। অ্যাপ‌–‌জনিত সমস্যা বাদ দিলে যাত্রীদের তেমন কোনও অভিযোগ নেই। কুড়ি হাজারের মতো যাত্রীর ভিড় হয়েছে উত্তর–‌দক্ষিণ মেট্রোয়। পূর্ব–‌পশ্চিমে চড়েছেন মাত্র ৮৩ জন যাত্রী। ই–‌পাশ নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে বিভ্রান্তি ছিল। বিশেষ করে মেট্রোর অ্যাপ নিয়ে। রাজ্য সরকারের পথদিশা অ্যাপ নিয়ে অবশ্য কোনও অভিযোগ নেই। এদিন মেট্রোর তরফে দমদম–‌সহ বিভিন্ন স্টেশনের বাইরে যাত্রীদের ই–‌পাশ সংগ্রহের জন্য সহযোগিতা করতে দেখা যায় মেট্রো–কর্মীদের। মেট্রো সূত্রে খবর, সকালের দিকে উত্তরের তুলনায় দক্ষিণের দিকেই যাত্রী বেশি হয়। কলকাতা পুলিশের পাশাপাশি যাত্রীদের সহযোগিতার কথাও স্বীকার করেছেন তঁারা। বারুইপুরের অমিতকুমার ঘোষ এদিন কবি নজরুল থেকে প্রথম মেট্রো ধরে দমদম আসেন। তঁার মতে, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই মেট্রো–‌কর্মীরা তঁাদের সহযোগিতা করেছেন। ই–‌পাশ থেকে শুরু করে মেট্রোর অনলাইন রিচার্জ নিয়ে কিছু সমস্যা হলেও দ্রুততার সঙ্গে সেই সমস্যা সমাধানে তৎপরতাও দেখিয়েছেন মেট্রো–কর্তারা। মেট্রোর জিএম সাংবাদিকদের জানান, খুব শিগ্‌গিরই তঁারা রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলে ট্রেনের সংখ্যা বাড়াবেন। লোকাল ট্রেন চালু হলেই ভিড় বাড়বে বলে তঁার আশা।

জনপ্রিয়

Back To Top