আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন করাতে হলে শুধু পুলিশের উপর নির্ভর করলেই চলবে না। গোটা বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলি থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও যাতে নিজেদের দায়িত্ব পালন করেন, তা নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। শুক্রবার নির্বাচনের বাকি দফাগুলি নিয়ে সর্বদল বৈঠকের আগে হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ, ভোটের মরসুমে করোনাবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে শুধুমাত্র পুলিশের কাঁধে দায়িত্ব চাপালেই চলবে না, কারণ এতে সব পক্ষেরই দায় রয়েছে। এমনকি রাজনৈতিক দলগুলোকেও কড়া নির্দেশ দেওয়া উচিত কমিশনের। এমনটাই মনে করে হাইকোর্ট। এই মর্মে কমিশনকে সোমবার রিপোর্ট জমা দিতে বলেছে আদালত।
নির্বাচনের ৪ দফা পেরিয়ে যাওয়ার পর দেখা যাচ্ছে যে, ভোটের প্রচারে মিটিং–মিছিল বা জনসভায় করোনাবিধির তোয়াক্কা করা হচ্ছে না। এ নিয়ে ভোটপ্রার্থী থেকে রাজনৈতিক দলের কর্মী–সমর্থকদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ–সব পক্ষেরই ঢিলেঢালা মনোভাব চোখে পড়ছে। রাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপটে এমনিতেই হু হু করে সংক্রমণ বাড়ছে। তার উপরে রাস্তাঘাট, দোকান ও বাজার থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক জমায়েতে করোনাবিধি অবহেলা করার ফলেও সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্যকর্তারা।
এই আবহে কীভাবে করোনাবিধি মেনে বাকি দফাগুলিতে ভোটগ্রহণ হবে, তা নিয়ে কমিশনকেই দায়িত্ব নিতে হবে বলে মনে করছে হাইকোর্ট।

জনপ্রিয়

Back To Top