আজকালের প্রতিবেদন- পথবাসী, আটকে পড়া শ্রমিক ও দুঃস্থদের কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। এরজন্য ক্যাম্পাসেই ‘‌কমিউনিটি কিচেন’‌ তৈরি করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া ও প্রাক্তনীরা। সোমবার যাদবপুর স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম ও স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় খাবার বিলি করা হয়। এদিন প্রায় ১২০ জনের খিচুড়ি রান্না করা হয়েছিল। উদ্যোগটি এদিন ৮ দিনে পড়ল। লকডাউনের সময় অনেকেই খাবারের সমস্যায় পড়তে পারেন, একথা ভেবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে কমিউনিটি কিচেনের আবেদন জানিয়েছিলেন কয়েকজন পড়ুয়া। কর্তৃপক্ষ তাঁদের মৌখিক অনুমতি দেন। এরপর ক্যাম্পাসের চার নম্বর গেটের কাছে পার্কিংলটে তৈরি হয় কমিউনিটি কিচেন। রান্নাও করছেন তাঁরাই। খাবার বিলি করার জন্য পুলিশের অনুমতিও নিয়েছেন তাঁরা। বিভিন্ন পড়ুয়া ও প্রাক্তন পড়ুয়াদের সাহায্যে গ্যাস সিলিন্ডার–‌সহ রান্নার অন্যান্য সরঞ্জাম জোগাড় করা হয়েছে। দেবজান সেনগুপ্ত, সৌরভ সাহু, সম্ভব চাকী, হিন্দোল মজুমদার–‌সহ ১৫–২০ জন মিলে চাল–ডাল কেনার টাকা তুলছেন ও বিলি করছেন। সেইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে চলছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক তৈরি। স্বল্পমূল্যে ওই মাস্ক ও স্যানিটাইজারও বিলি করা হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়। পড়ুয়ারা জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে থাকতে চান। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না–‌হওয়া পর্যন্ত তাঁরা এই কাজ চালিয়ে যাবেন। তাঁদের বক্তব্য, করোনার দিনগুলিতে স্পর্শ না করেও অসহায় হাতগুলো অন্তত ধরা থাকুক। 

জনপ্রিয়

Back To Top