আজকালের প্রতিবেদন: নির্বিঘ্নেই মিটল যাদবপুরের ছাত্রভোট। আজ, বৃহস্পতিবার ভোটের ফল জানা যাবে। সকাল ১০টা থেকে ভোটগণনা শুরু হবে। প্রায় দু’‌বছর পর বুধবার ছাত্র সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হ‌ল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। ভোট শুরু হয় সকাল ১০টা থেকে। তিন ভাগে ভোটগ্রহণ চলে সন্ধে ৭টা পর্যন্ত। উত্তাপ থাকলেও ভোট হয়েছে শান্তিতে।
ভোট কেমন হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখতে এদিন সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। তিনি জানান, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সবার অংশগ্রহণের অধিকার রয়েছে। কর্তৃপক্ষের কাজ নিয়ম মেনে সুষ্ঠুভাবে ভোট করানো। সেটাই করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য মেনে শান্তিপূর্ণ ভোট প্রক্রিয়ার আহ্বান জানানো হয়েছিল। পড়ুয়ারা তাতে সাড়া দিয়েছে। 
তবে এদিন মাস কমিউনিকেশন বিভাগের এক ছাত্রী অভিযোগে জানিয়েছেন, তাঁকে ভোট দিতে বাধা দেওয়া হয়। তুলনামূলক সাহিত্যে বিভাগের এক পড়ুয়াকেও ভোট দিতে বাধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এবার যাদবপুর ছাত্রভোটের মূল ইস্যু সিএএ এবং এনআরসি। এ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়েও সোচ্চার কয়েকটি ছাত্র সংগঠন। তবে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো সার্বিক বামঐক্য হয়নি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। আলাদা আলাদা ভোটে লড়ছে ৭টি বাম সংগঠন।
এসএফআই থেকে বেরিয়ে আসা বিক্ষুব্ধরা আরএসএফ–কে সমর্থন করেছে বলে জানা গেছে। এবারই প্রথম যাদবপুরের ছাত্রভোটে প্রার্থী দিয়েছে এবিভিপি। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top