আজকালের প্রতিবেদন: বল প্রয়োগ নয়, মানুষকে বুঝিয়ে হুকিং বন্ধ করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির এই নির্দেশের কথা বুধবার বিধানসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে জানালেন বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চ্যাটার্জি। তিনি জানান, হুকিংয়ের ফলে বিদ্যুৎ প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলির বছরে ১০০০ কোটি টাকা ক্ষতি হচ্ছে। কংগ্রেসের আবু তাহের মন্ত্রীকে বলেন, হুকিংয়ের অত্যাচারে ভোল্টেজ কমে যাচ্ছে গ্রামেগঞ্জে। হুকিংয়ের অত্যাচারে বিদ্যুতের দামও বেড়ে চলেছে। বিদ্যুৎমন্ত্রী জানান ক্ষতির কথা। তবে বিদ্যুতের দাম রাজ্য সরকার ঠিক করে  না, ইলেকট্রিসিটি রেগুলেটরি কমিশন ঠিক করে। কয়লা, তেল–‌ সহ অন্যান্য সব জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। ক্লিন এনার্জি সেসও নেওয়া হচ্ছে। এই সব রিপোর্টের ভিত্তিতেই বিদ্যুতের দাম ঠিক করে রেগুলেটরি কমিশন। এখন রাজ্যে গড় বিদ্যুতের দাম ৭ টাকা ১২ পয়সা। হুকিংয়ের প্রসঙ্গ তোলেন কংগ্রেসের সাবিনা ইয়াসমিনও। তিনি মন্ত্রীকে জানান, কিছু টোটো হুকিং করে ব্যাটারিতে চার্জ দিচ্ছে। ফলে বিদ্যুতের বিল বেশি আসছে। নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্তের ওপর চাপ পড়ছে। বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নানের প্রশ্ন ছিল এদিন। যদিও তিনি অধ্যক্ষকে আগেই জানিয়েছিলেন এদিন আসতে পারবেন না। তাঁর হয়ে প্রশ্ন করবেন কংগ্রেসের নেপাল মাহাতো। মূলত রাজ্যের বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলির বিদ্যুৎ উৎপাদন নিয়েই প্রশ্ন ছিল এদিন। বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চ্যাটার্জি জানিয়েছেন, ওয়েস্ট বেঙ্গল পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটিডের অধীনে ৫টি উৎপাদন কেন্দ্র রয়েছে। কোলাঘাটে গড় দৈনিক উৎপাদন ১২.‌৭৭ মিলিয়ন ইউনিট, বক্রেশ্বরের ১৯.‌৮৬ মিলিয়ন ইউনিট, ব্যান্ডেলে ৫.‌৪৯ মিলিয়ন ইউনিট, সাঁওতালডিতে ৭.‌৯৯ 
মিলিয়ন ইউনিট, সাগরদিঘিতে ১৬.‌৭৭ 
মিলিয়ন ইউনিট। 
এছাড়া ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের জলবিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রগুলির উৎপাদন ৪২,৮৭,৭৩৯ ইউনিট ও সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প কেন্দ্রগুলির দৈনিক উৎপাদন গড়ে ৫৫,৬১০ ইউনিট। নার্গিস বেগম ক্লাবগুলিতে বিদ্যুৎ পরিষেবা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। জয়ন্ত নস্কর গোসাবা ব্লকের বিদ্যুতের বিষয়ে জানতে চান। প্রতিমা রজক ডোমেস্টিক ও কমার্শিয়াল বিদ্যুতের ইউনিট প্রতি মূল্যর বিষয়ে মন্ত্রীর কাছে জানতে চান। বিরোধী দলের বিধায়করা বলেন, ৩ মাসের বিল না পাঠিয়ে প্রতি মাসে পাঠালে সুবিধে হয়। এছাড়াও বিদ্যুৎ নিয়ে প্রশ্ন করেন সমর হাজরা, শীলভদ্র দত্ত, সমর মুখার্জি, তমোনাশ ঘোষ এবং মনোজ চক্রবর্তী। মনোজ চক্রবর্তী জানতে চান ৬ বছরে সিইএসসি কত বিদ্যুৎ বিল বাড়িয়েছে। মন্ত্রী তার একটি পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top