আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ প্রত্যাশামতোই মুক্তির দিনেই বিক্ষোভের মুখে পড়ল ‘দ্য অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’। সিনেমায় সত্য ঘটনাকে বিকৃত করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে এই দাবি তুলে সিনেমার প্রদর্শনী বন্ধের জন্য হিন্দ সিনেমার সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন যুব কংগ্রেসের সদস্যরা। খবর পেয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিস। সিনেমাহলের সামনে ব্যরিকেড করে দেয় তারা। এরপরই বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিসের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন যুব কংগ্রেসের সদস্যরা।  কিছুক্ষণ পরই নিরাপত্তার খাতিরে ছবি প্রদর্শনী বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। যুব কংগ্রেস নেতা সুমন পালের নেতৃত্বে এদিন হিন্দ সিনেমার সামনে বিক্ষোভে দেখাতে থাকেন কর্মীরা। বেলা সাড়ে এগারোটায় ছবির প্রথম শো শুরু হওয়ার আগে থেকেই শুরু হয় বিক্ষোভ। বন্ধ করে দেওয়া হয় সিনেমা হলের দরজা। সিনেমা শুরু হলেও নিরাপত্তার খাতিরে ১০ মিনিট দেখানোর পর বন্ধ করে দেওয়া হয় সিনেমার প্রদর্শনী। হিন্দ সিনেমা হলের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দর্শকদের টিকিটের টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তবে ফের প্রদর্শনী হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি। এর পাশাপাশি ইন্দিরা সিনেমা হলেও বিক্ষোভের জেরে বন্ধ করে দেওয়া হয় ‘‌দ্য ‌অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’–এর প্রদশর্নী।
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের মিডিয়া উপদেষ্টা সঞ্জয় বারুর বই অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ছবিটি। মুক্তির আগে থেকেই ছবিটি ঘিরে গোটা দেশে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়। কংগ্রেসের একাধিক শীর্ষ নেতা অভিযোগ করেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর চরিত্রে কালি মাখানোর চেষ্টা করা হয়েছে বলেও অভিযোগ ওঠে। লোকসভা ভোটের আগে এই ছবি মুক্তি পাওয়ার পিছনে রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে বিজেপির। গান্ধী পরিবার ও কংগ্রেসের দুর্নাম করে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক সুরক্ষিত করতে চাইছে আরএসএস এবং বিজেপি। 

জনপ্রিয়

Back To Top