আজকাল ওয়েবডেস্ক: বন্ধ দরজার ওপারে নয়‌, জনসমক্ষে, সংবাদমাধ্যমের সামনেই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি। রবিবার বিকেল চারটে নাগাদ জিবি বৈঠক শেষে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিলেন আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তাররা। একইসঙ্গে তাঁরা এও স্পষ্ট করে দিয়েছেন, বৈঠকের স্থান এবং কাল মুখ্যমন্ত্রীই ঠিক করুন। তিনি যেখানে, যখন বা যেদিন বলবেন সেখানেই তাঁরা বৈঠকে বসতে রাজি। কিন্তু স্বচ্ছতা রক্ষার জন্যই সেটা হতে হবে সবার সামনে। বৈঠকে তাঁদের তরফে পর্যাপ্ত সংখ্যক প্রতিনিধিকে রাখতে হবে। চিকিৎসকদের নিরাপত্তা, নিগ্রহকারীদের গ্রেপ্তার, পরিকাঠামোগত উন্নয়ন সহ তাঁদের দাবিগুলিকে মানতে হবে রাজ্য সরকারকে। যত দ্রুত মুখ্যমন্ত্রী তাঁদের দাবি মেনে বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেবেন তত তাড়াতাড়ি তাঁরা কাজে ফিরবেন। তাঁরা বলেছেন, তাঁদের সম্পর্কে বিভ্রান্তিমূলক খবর ছড়ানো হচ্ছে। মানুষের অসুবিধা না করে চিকিৎসক হিসেবে তাঁরা সবাই দ্রুত কাজে ফিরতে চাইছেন।
এনআরএস–এর অ্যাকাডেমি বিল্ডিং–এ জিবি–তে এনআরএস–এর অধ্যক্ষ ছাড়া বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রতিনিধিরা ছিলেন। সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল চারটে পর্যন্ত চলে বৈঠক। শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর করা কাজে যোগ দেওয়ার আবেদন এবং বৈঠকের মাধ্যমে সমাধানের আহ্বানের পর নমনীয় হন জুনিয়র ডাক্তাররা। তাঁরাও আলোচনার মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ সমাধান সেরে কাজে যোগ দিতে ইচ্ছুক বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন। মমতা এও বলেছেন, জুনিয়র ডাক্তাররা নবান্নে না যেতে চাইলে রাজভবনেও বৈঠক হতে পারে। এরপরই দ্বিধাবিভক্ত আন্দোলনকারীরা আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া স্থির করেন।
ছবি:‌ এএনআই 

জনপ্রিয়

Back To Top