আজকালের প্রতিবেদন: ‘‌কলকাতাশ্রী’‌ প্রতিযোগিতায় মেয়র ও মেয়র পারিষদদের পুজো অংশগ্রহণ করতে পারবে না। ‘‌কলকাতাশ্রী’‌ প্রতিযোগিতার আবেদনপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের এ কথা ঘোষণা করলেন কলকাতার মহানাগরিক ফিরহাদ হাকিম। প্রতি বছরের মতো এবারও কলকাতা পুরসভা এবং সিইএসসি–‌র যৌথ উদ্যোগে দুর্গাপুজো প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে। বুধবার পুরসভার সামনে চ্যাপলিন স্কোয়্যারে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রতিযোগিতার আবেদনপত্র বিলি শুরু হয়। পুজো কমিটিগুলির হাতে আবেদনপত্র তুলে দেন মহানাগরিক। সেখানেই মেয়র জানিয়ে দেন, যে–‌সব পুজোর সঙ্গে মেয়র এবং মেয়র পরিষদ সদস্যরা যুক্ত রয়েছেন, সেই সব পুজো এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে না। আবেদনপত্র বিলি শুরু হল। চলবে ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এই অনুষ্ঠানে ছিলেন ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলি, মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমার, সিইএসসি এবং পুরসভার পদস্থ আধিকারিকেরা। পুরসভা সূত্রে জানা গেছে, পুরসভার কেন্দ্রীয় ভবনের সিংহদ্বারে আবেদনপত্র পাওয়া যাবে। এ ছাড়া অনলাইনেও আবেদনপত্র ডাউনলোড করা যাবে। প্রতিযোগিতায় ১১টি বিভাগ রয়েছে। কলকাতাশ্রী সেরার সেরা, সেরা পুজো, সেরা প্রতিমা, সেরা শৈল্পিক উৎকর্ষ, সেরা বিষয়, সেরা আলোকসাজ, সেরা পরিবেশ, পরিচ্ছন্নতায় সেরা, সেরা সম্ভাবনা, মেয়র্‌স চয়েস এবং দর্শকের চোখে সেরা পুজো।

তিন অধিনায়ক। দু’জন প্রাক্তন। একজন বর্তমান। কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম এবং মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারের সঙ্গে ঢাক বাজাচ্ছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। সেরা পুজোগুলি নিয়ে কলকাতা পুরসভার ‘কলকাতাশ্রী’ কর্মসূচির উদ্বোধনে। পুরভবনে, বুধবার।ছবি:  রনি রায়

জনপ্রিয়

Back To Top