Tumour: চোখে টিউমারের সফল অস্ত্রোপচার 

সাগরিকা দত্তচৌধুরি: কুমিরের গায়ের চামড়ার মতো খসখসে শক্ত ত্বক, তার ওপর চোখে টিউমার‌‌–এইরকম পরিস্থিতিতে রোগীর অস্ত্রোপচার করতে কালঘাম ছুটে যায় চিকিৎসকদের।

এমনই খসখসে চামড়া যে হাতে ঠিকমতো চ্যানেল করা যাচ্ছিল না। যে পদ্ধতিতে এই ধরনের টিউমারের অস্ত্রোপচার করা হয় তা করতে গিয়ে বেশ কিছুটা বেগ পেতে হয় রিজিওনাল ইনস্টিটিউট অফ অপথ্যালমোলজির (‌আরআইও)‌ চিকিৎসকদের। তবে অস্ত্রোপচারে বেগ পেতে হলেও অসাধ্য সাধন হয় অরবিট অকুলোপ্লাস্টি অ্যান্ড রি–কনস্ট্রাকটিভ সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ সলিলকুমার মণ্ডলের নেতৃত্বে। গত মাসের শেষে চক্ষু বিভাগ থেকে রোগীর ছুটি হলেও অন্যান্য সমস্যার জন্য রোগীকে এখন ত্বক ও সার্জারি বিভাগে দেখাতে হচ্ছে। 
হুগলির বাসিন্দা বছর ৩৯–এর শাহনাবুজ করিম। বাঁ চোখের টিউমার নিয়ে মাস দুয়েক আগে কলকাতা মেডিক্যালের আরআইও–তে আসেন। সি৭ ইউনিটে দেখান। রোগীর ত্বকের রোগ ইকথায়োসিস এরিথ্রোডার্মা–সহ বাঁ চোখের পাতায় ব্যাসাল সেল কার্সিনোমা ছিল। অর্থাৎ রোগীর বাঁ চোখের পাতায় টিউমার ছিল। যা ক্যান্সার প্রবণ। অস্ত্রোপচারে টিউমার আক্রান্ত চোখের পাতা কেটে বাদ দেওয়া হয়। তারপর সেই ক্ষতস্থান জুড়তে চামড়ার ফ্ল্যাপ সার্জারি করেন চিকিৎসকরা। যে পদ্ধতিতে রোগীর অস্ত্রোপচার করা হয় তার নাম ‘‌কাটলার বিয়ার্ড প্রসিডিওর’।‌ বাঁ চোখের পাতার নীচের অংশের চামড়া–সহ টিস্যু মাঝখান দিয়ে কেটে তা টেনে ধরে ঘুরিয়ে (‌ফ্ল্যাপ সার্জারি)‌ ওপরের পাতার সঙ্গে জুড়ে দুটি স্তরে সেলাই করা হয়। যাতে চামড়া ছিঁড়ে না যায়। এভাবে টেনে জুড়ে দেওয়ার কাজটাই যথেষ্ট কঠিন ছিল। কারণ খসখসে চামড়ার জন্য অসুবিধা হচ্ছিল চিকিৎসকদের। 
ডাঃ সলিলকুমার মণ্ডল বলেন, ‘চোখে টিউমারের ‌ফ্ল্যাপ সার্জারি এর আগে অনেক হয়েছে। কিন্তু এই রকম ত্বকের ওপর অ্যাডভান্স ফ্ল্যাপ সার্জারি প্রথম হল আরআইও–তে। স্বাভাবিক ত্বক হলে অসুবিধা হত না। কিন্তু ইকথায়োসিস এরিথ্রোডার্মা ত্বকের রোগের ওপর অস্ত্রোপচার করা খুব কঠিন ছিল। টিস্যু–সহ চামড়া টেনে ধরলেও তা ছিঁড়ে যাওয়ার আশঙ্কা ছিল। ফলে খুব সাবধানে রোগীর অস্ত্রোপচার করতে হয়েছে যাতে কোনও বিপত্তি না ঘটে। মার্চে রোগীর অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। কিছুদিন আগে সেলাই কাটা হয়েছে। রোগী এখন ভাল আছেন। মাস তিনেক পর চোখের ফ্ল্যাপ মাঝখান দিয়ে কেটে দুটি চোখের পাতা পৃথক করে দিলে রোগী আগের মতো ভালভাবে দেখতে পাবেন।’‌ অস্ত্রোপচারে সহায়তা করেন চিকিৎসক তিথি কুণ্ডু, নূপুর পেডনেকার, তন্ময় সাঁতরা, অর্শিক মুখোপাধ্যায়, আসিফ আয়ুব এবং মৃণালকান্তি মণ্ডল। এই ফ্ল্যাপ সার্জারির ওপর ডাঃ মণ্ডলের অধীনে থিসিস করেছেন আরআইও–র ডাঃ অন্বেষা মৈত্র। যিনি এবার মুম্বইতে সর্বভারতীয় সম্মেলনে ফ্ল্যাপ সার্জারি নিয়ে প্রেজেন্টেশন করবেন।‌

আরও পড়ুন:‌ ফের ধেয়ে আসছে বিশাল গ্রহাণু

আকর্ষণীয় খবর