নিজের বাড়িতে দাদার যৌন লালসার শিকার বোন, আতঙ্কে ভুগছেন নির্যাতিতা

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ টানা ৫ মাস ধরে বাড়িতেই ধর্ষণ বোনকে, ঘটনায় অভিযুক্ত দাদা। নৃশংস এই ঘটনাটি ঘটেছে আনন্দপুর এলাকায়। দাদা এবং বোনের সম্পর্ক হয় খুনসুটিতে ভরা কিংবা খানিক অভিমানের সম্পর্ক। বিভিন্ন ক্ষেত্রেই সমাজে দেখা যায় বোনেদের অভিভাবকের ভূমিকায় রয়েছে দাদারা। কিন্তু অআনন্দপুরের ঘটনা বলছে অন্য কথা। এখানে নির্যাতিতা তরুণার একটাই অভিযোগ, টানা ৫ মাস ধরে তাকে বাড়িতেই ধর্ষণ করে দাদা। পুলিশ এই অভিযোগ পেয়েই তদন্ত শুরু করে। নির্যাতিতা তরুণীর দাদাকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ। টিটাগড় এলাকা থেকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে অভিযুক্ত যুবককে। আনন্দপুরের ওই তরুণী থানায় গিয়ে পুলিশে অভিযোগ জানান, তার দাদা গত জানুয়ারি মাস থেকেই লাগাতার ভাবে ধর্ষণ করে যাচ্ছে। আনন্দপুরের বাড়িতেই তরুণীকে ধর্ষণ করত ওই অভিযুক্ত যুবক। পুলিশের তরফে ওই তরুণীর শারীরিক পরীক্ষা করে দেখা হয়। তবে অবিযুক্ত যুবক জনে যায় তার বোন পুলিশে অবিযোগ করছে। আর টের পেয়ই অভিযুক্ত যুবক পালিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। পালিয়ে গেলেও পুলিশ তাকে ঠিক খুঁজে বের করে। পুলিশ অভিযুক্ত যুবককে টিটাগড় থেকে গ্রেপ্তার করে। অভিযুক্ত যুবককে পুলিশি হেফাজতে রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। অভিযুক্তকে নিজেদের হেফাজতে রেখে জেরা করতে চায় পুলিশ। অভিযুক্ত যুবকের বিষয়ে সমস্ত খোঁজখবরও করছে পুলিশ। আরও কোনও যৌন সম্পর্কে কিংবা ধর্ষণের অভিযোগ অভিযুক্তর নামে রয়েছে কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।