India-West Indies: মোতায়েন ৩০০০ পুলিশ, ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তায় মোড়া! বৃষ্টির ভ্রুকুটির মধ্যেই তৈরি রবিবারের ইডেন

আজকাল ওয়েবডেস্ক: তিন মাস পর আবার দর্শক ফিরছে ইডেনে। নভেম্বরে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৭৫ শতাংশ দর্শক নিয়ে টি-২০ ম্যাচ হয়েছিল। এবার কোভিড পরিস্থিতিতে অবনতি হওয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের প্রথম দুটো ম্যাচ দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হয়। শুধু ক্লাব হাউজের আপার টায়ারে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। রবিবার সিরিজের শেষ ম্যাচে সমস্ত ব্লকের আপার টায়ার দর্শকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। তবে টিকিট বিক্রি হচ্ছে না। মেম্বারদের বিনামূল্যে টিকিট দেওয়া হচ্ছে। শনিবার সকাল দশটা থেকে দুপুর দুটো পর্যন্ত ইডেনের ৫ নম্বর গেট থেকে ১২ নম্বর গেট পর্যন্ত সিএবি মেম্বারদের জন্য টিকিট বণ্টন হয়। 

সিরিজের ফয়সালা ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে। রবিবাসরীয় ইডেনে নেই আগের ম্যাচের দুই নায়ক বিরাট কোহলি এবং ঋষভ পন্থ। কিন্তু তাসত্ত্বেও উন্মাদনায় কোনও ঘাটতি নেই। শনিবার সকাল থেকেই ইডেন চত্বরে ভীড়। প্রতিটি গেটে লম্বা লাইন।

টাকার টিকিট বিক্রি না হলেও কমপ্লিমেন্টারি টিকিটই ব্ল্যাক হচ্ছে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে টিকিট ব্ল্যাকাররা। শনিবার বিকেলে স্টেডিয়াম চত্বরে গিয়ে সেই চিরাচরিত দৃশ্যই চোখে পড়ল। টিকিটের জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছে শহরের ক্রিকেটপ্রেমীরা। ইডেনের মোট দর্শক আসন ৬৬ হাজার। রবিবার ৩০,০০০ সিট ভরে যাওয়ার আশা করছেন সিএবি কর্তারা। অর্থাৎ প্রায় ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়েই হবে রবিবারের ম্যাচ। তাই যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকছে। 

মোট ৩০০০ পুলিশ মোতায়েন থাকবে। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তায় মোড়া থাকবে ইডেন। শনিবার বিকেলে সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন পুলিশ কমিশনার বিনীত গোয়েল। ইডেনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঘুরে দেখেন তিনি। কোভিড বিধি মেনেই ম্যাচ আয়োজিত হবে। প্রত্যেক সিটে থাকবে মাস্ক এবং স্যানিটাইজার। রবিবার বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তাই সুপার সপারও তৈরি রাখা হচ্ছে। আবার ইডেনে দর্শক ফেরাতে পেরে খুশি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া। লক্ষ্য রবিবার সুষ্টুভাবে ম্যাচ আয়োজন করা।

ছবি: অভিষেক চক্রবর্তী

আকর্ষণীয় খবর