শ্রাবণী গুপ্ত 

 

 

সামনেই বাম ব্রিগেড। ডিজিটাল থেকে দেওয়াল, প্রচার চলছে সর্বত্র। তবে একমত সবাই, নজর কেড়েছে ‘‌টুম্পা সোনা’‌ প্যারোডি। সুর এবং ‘‌টুম্পা সোনা’‌ শব্দবন্ধ নিয়ে আপত্তি ছিল এক অংশের বাম কর্মী সমর্থকদের। কিন্তু তাঁদের আপত্তি ফুৎকারে উড়িয়ে ছাত্র, যুব, এমনকি সাধারণ মানুষের মন ছুঁয়েছে এই প্যারোডি। গানের কথা, বিশেষত বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে যেভাবে আক্রমণ শানানো হয়েছে, যেভাবে নারদ এবং সারদা কাণ্ডকে তুলে আনা হয়েছে, দেশ জুড়ে বে রোজগার, দিল্লির কৃষক আন্দোলন এই গানে উঠে এসেছে, তা নিয়ে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া গেছে বাম মহলে। 
এখন প্রশ্ন হলো, এই গানের গীতিকার, গায়ক কে? খুঁজে বের করেছে aajkaal.in। গান লিখেছেন রাহুল পাল। কণ্ঠ আর সঙ্গীতায়োজনে নীলাব্জ নিয়োগী। মিডিয়া থেকে দূরে, আড়ালেই থাকতে চাইছেন এই জুটি। তবু সেই আড়াল ভেঙে aajkaal.in এর সঙ্গে কথা হলো। কি বললেন রাহুল? বললেন,  ‘‌আমাদের নয়, আমাদের তৈরি করা গান নিয়ে কথা হোক। এই গানের মধ্যে দিয়ে আমরা যে বার্তা দিতে চেয়েছি, কথা হোক তা  নিয়ে।’‌ টুম্পা প্যারোডির গীতিকার রাহুল আদতে বাম কর্মী হিসেবেই নিজের পরিচয় দিতে ভালবাসেন। ২৮ শে ব্রিগেড যাবেন কিনা জানতে চাইলে তৎক্ষণাৎ উত্তর এলো, ‘‌অবশ্যই।’‌ কলকাতার বাসিন্দা রাহুল এবং বয়সে তাঁর থেকে অনেকটাই ছোট নীলাব্জ এর আগেও বহু গান তৈরি করেছেন। নীলাব্জ পেশায় সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার, নেশায় গায়ক। ‘‌দিন বদলের গান’‌–এই জুটির স্বপ্ন। দিন দুয়েক আগেই আরও একটি গান বেঁধেছে এই জুটি। ‘‌মানুষ বাঁধার গান’‌ মৌলিক সৃষ্টি, যা টুম্পা প্যারোডির মত না হলেও সিরিয়াস শ্রোতাদের পছন্দ হয়েছে। ‘‌চল টুম্পা তোকে নিয়ে ব্রিগেড যাব’‌ কথায় যারা ভুরু কুঁচকে নানান প্রশ্ন তুলেছিলেন, এক কথায় তাঁদের চুপ করিয়ে দিচ্ছেন বাম নেতারা।
 সিপিএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী যেমন স্পষ্ট বললেন, ‘‌প্রাসঙ্গিক বক্তব্য উঠে এসেছে এই গানে। বিতর্কের কোনও জায়গা নেই।’‌ আর রাহুল–নীলাব্জ জুটি বলছেন, ‘‌এই কঠিন সময়ে আরও অনেক গান তৈরি করতে হবে।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top