বিয়ে বাতিলের মামলা শুরু হতেই স্পিকারকে জানিয়েছি, নুসরতের মন্তব্যে ফের বিতর্ক 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান বিয়ে করেছেন কি করেননি তা নিয়ে ফের ধোঁয়াশা ছড়াল। ৯ জুন সংবাদমাধ্যমকে নুসরত বলেন, তাঁর বিয়ে আদৌ হয়ইনি। অথচ আজ বিজেপি সাংসদ সঙ্ঘমিত্রা মৌর্যের অভিযোগের জবাব দিতে নুসরত দাবি করেন, তাঁর ম্যারেজ অ্যানালমেন্টের (বিয়ে বাতিল) মামলা শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে লোকসভার স্পিকারকে সে কথা লিখিত আকারে জানিয়েছেন। পরস্পর বিরোধী দুই মন্তব্যে স্বভাবতই নতুন করে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। 
১৯ জুন লোকসভার স্পিকারের কাছে নুসরতের বিরুদ্ধে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগ আনেন সঙ্ঘমিত্রা। লোকসভায় নুসরত বিবাহিত হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন, তথচ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তাঁর বিয়েই হয়নি। বিভ্রান্তিকর তথ্য দেওয়ার অপরাধে তাঁর সাংসদ পদ খারিজের দাবি করেন বিজেপি সাংসদ। লোকসভার এথিকস কমিটি যাতে এ নিয়ে তদন্ত করে তার অনুরোধ করেছিলেন তিনি।
সঙ্ঘমিত্রার অভিযোগের পালটা দিতে গিয়েই নুসরত জানান, বিয়ে বাতিলের মামলা শুরু হতেই তিনি স্পিকারকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন। এখন প্রশ্ন হল বিয়ে যদি নাই হয় তবে বিয়ে বাতিলের মামলাই বা হবে কেন। বলা বাহুল্য, এ নিয়ে বিজেপি শিবির থেকে নিশ্চয়ই নতুন প্রতিক্রিয়া দেওয়া হবে। তার আগে তৃণমূল সাংসদ জানিয়েছিলেন, এটা নুসরতের একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়, তা নিয়ে দল মাথা ঘামাবে না।