আজকালের প্রতিবেদন: প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি ঘনিষ্ঠ বিধায়ক অপূর্ব সরকার (‌ডেভিড)‌ কংগ্রেস ছাড়ছেন। বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি অধীরের সঙ্গে নেই। অধীরের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ তাঁর। পাশাপাশি তিনি শাসক দলের মন্ত্রীদের প্রশংসা করেছেন। বুধবারও অপূর্ব বিধানসভায় আসেন। আজ কান্দিতে তৃণমূলের পঞ্চায়েতরাজ সম্মেলনে শুভেন্দু অধিকারীর উপস্থিতিতে অপূর্বর তৃণমূলে যোগ দেওয়ার কথা। তৃণমূলে যাচ্ছি একথা সরাসরি অপূর্ব না জানালেও বিধানসভায় তিনি বলেন, অনেক দিন কংগ্রেস করেছি। ২০০৬–‌তে প্রথম নির্দল হিসেবে বিধায়ক হই। তারপর কংগ্রেসে যোগ দিই। ২০১১–‌১৬ বিধানসভায় জিতি। অধীরের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ, বিপদের সময় তাঁর সাহায্য পাইনি। তাঁর জন্য অনেক করেছি। দল যেরকম নির্দেশ দিয়েছে সেইমতো কাজও করেছি। শাসকদলের মন্ত্রীরা আমার এলাকার উন্নয়নের জন্য অনেক সাহায্য করেছেন। সকলের সঙ্গে আমার ভাল সম্পর্ক। মুর্শিদাবাদে তৃণমূলের পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। এদিন বিধানসভায় শুভেন্দু বলেন, মুর্শিদাবাদে কংগ্রেসে ফের বড় একটা ধস নামছে। চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার কান্দিতে যাচ্ছি, কংগ্রেসের ফের সর্বনাশ হবে। শুভেন্দু এদিন পরিবহণের বাজেট পেশ করতে গিয়ে এই মন্তব্য করায় কংগ্রেস বিধায়করা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, দলের পক্ষে আমি মুর্শিদাবাদের সংগঠনের দায়িত্বে আছি। বিধানসভায় আমাকে দেখলেই মুর্শিদাবাদের কংগ্রেস বিধায়করা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা করেন। ওঁরা যদি ভাল কাজ দেখেও বিধানসভায় না থাকেন, আমার কী করার আছে?‌   ‌

জনপ্রিয়

Back To Top