আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নির্বাচনী নির্ঘণ্ট ঘোষণা হতেই বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। সেই আবহাওয়াতেই শুক্রবার সন্ধ্যাতেই কলকাতায় পা রাখতে চলেছে বিএসএফের প্রথম কোম্পানি। শনিবার ভোর থেকেই তাঁদের রুটমার্চ করতে দেখা যাবে শহরের রাস্তায়।
পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ৮ থেকে ১০ জন করে বিএসএফ কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় টহল দেবে। যার মধ্যে রয়েছে পঞ্চসায়র সংলগ্ন শহিদ নগর এলাকা, কাশীপুরের উদ্যানবাটি এবং এন্টালি–ট্যাংরা অঞ্চল। পুলিসের আশা, বিএসএফ টহলদারির মধ্য দিয়ে ভোটারদের মধ্যে নির্ভয়ে ভোট দেওয়ার আত্মবিশ্বাস জন্মাবে। শনিবার সকাল থেকেই বিএসএফ তাদের রুটমার্চ শুরু করে দেবে। কলকাতা পুলিসের এক শীর্ষ কর্তা বলেন, ‘‌শহরের প্রত্যেকটি এলাকার ডিসিপিকে আধাসেনা পরিচালনা করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আধা সেনা এবং বিএসএফের সঙ্গে পুলিসের উপস্থিতিও দেখতে পারবে সাধারণ মানুষ। প্রতিটি পুলিস থানার অন্তর্গত দু–তিনটি এলাকায় শুরু করে দেওয়া হবে নাকা। বাড়িয়ে দেওয়া হবে পুলিসি নজরদারি। শহরের ৮২টি জায়গায় ট্রাফিক পুলিসকেও সজাগ থাকতে বলা হয়েছে।’‌ নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে শহরে প্রায় ১২০০টিরও বেশি স্পর্শকাতর বুথ রয়েছে। 
শুক্রবার কলকাতায় প্রথম কোম্পানি বিএসএফের পাশাপাশি আরও নয় কোম্পানি বিএসএফ আসবে। যারা রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে পড়বে। জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগণার জন্য দুই কোম্পানি বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়াও উত্তর ২৪ পরগণা, মূর্শিদাবাদ, মালদা, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর দিনাজপুর, বীরভূম ও পশ্চিম বর্ধমানের জন্য আট কোম্পানি বিএসএফ যাবে। জানা গিয়েছে, এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে ১২৫ কোম্পানি আধা সেনা বাহিনী এ রাজ্যে আসবে। প্রথম পর্যায়ের নির্বাচন অর্থাৎ ১১ এপ্রিল, যা কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে হবে, সেখানে মোতায়েন করা হবে এই আধা সেনাদের। 


 

জনপ্রিয়

Back To Top