আজকালের প্রতিবেদন: হাজরার চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটে শিশুরোগীদের জন্য চালু হল ‘‌খেলার ঘর’‌। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ক্যান্সার ফাইট ফাউন্ডেশন–এর সহায়তায় পেডিয়াট্রিক অঙ্কোলজি বিভাগের পাশেই বুধবার নৃত্যশিল্পী অলকানন্দা রায় উদ্বোধন করেন ‘‌‌খেলার ঘর’। তিন বছর ধরে এই প্রচেষ্টা চালাচ্ছিলেন সংস্থার ফাউন্ডার ও ট্রাস্টি রিমি মেহরা। তাঁর মা ডাঃ এমা মুখার্জি প্রখ্যাত অঙ্কোলজিস্ট ছিলেন। এদিন তাঁর মায়ের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হয় হাসপাতালে। পেডিয়াট্রিক অঙ্কোলজি বিভাগে ৯টি বেড রয়েছে। ইনডোর ও আউটডোরে আসা ক্যান্সার–আক্রান্ত শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে খেলার ঘর খুব সুন্দর করে সাজানো হয়েছে। বিভিন্ন খেলনা, সাইকেল, বল, মিকি মাউস, বেলুন, নানান রকম কার্টুনের ছবি, পাজ্‌ল প্রভৃতি সামগ্রী দিয়ে সেজেছে এই ঘর। এদিন শিশুরা এই সমস্ত সামগ্রী পেয়ে খুব খুশি হয়। রিমি মেহরা জানিয়েছেন, ‘‌সারাক্ষণ ওষুধ খেয়ে, সূচ ফুটিয়ে ওরা ক্লান্ত। ওদের মুখে হাসি ফোটাতেই আমাদের এই ছোট্ট প্রয়াস। মনে আনন্দ থাকলে করাল কর্কট রোগকে হার মানাতে ওরা বল পাবে।’‌ এদিন কেক কেটে, সঙ্গীত পরিবেশন, ম্যাজিক শো, পাপেট শো প্রভৃতিতে মেতে ওঠে খুদেরা। অনুষ্ঠানে ছিলেন ক্যান্সার হাসপাতালের অধিকর্তা ডাঃ জয়ন্ত চক্রবর্তী, পেডিয়াট্রিক অঙ্কোলজি বিভাগীয় প্রধান ডাঃ কল্যাণ মুখার্জি, ফাউন্ডেশনের পেট্রন ডাঃ শুভদীপ চ্ক্রবর্তী, চেয়ারম্যান ডাঃ অচিন্ত্য দাশ, সেক্রেটারি সুস্মিতা ব্যানার্জি প্রমুখ।  ‌

জনপ্রিয়

Back To Top