আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ টালা ব্রিজ বন্ধ। ইতিমধ্যে ব্রিজ ভেঙে ফেলার সুপারিশ করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আবার ‘‌শারীরিক অবস্থা’‌র অবনতি হয়েছে বেলগাছিয়া ব্রিজের। আর তাই ব্রিজের বহন ক্ষমতা বাড়াতে পিচের আস্তরণ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ত দপ্তর। এই মর্মে টেন্ডারও ডাকা হয়েছে।
টালা ব্রিজ বন্ধের পর গাড়ির চাপ বেড়েছে বেলগাছিয়া ব্রিজে। ফলে বহন ক্ষমতা অনেকটাই কমেছে ব্রিজের। আর তাই ব্রিজের পিচের আস্তরণ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পূর্ত দপ্তর। ইতিমধ্যে টেন্ডারও ডাকা হয়েছে। তবে একটি শর্তও রাখা হয়েছে পূর্ত দপ্তরের তরফ থেকে। পিচের আস্তরণ তুলতে ব্যবহার করা যাবে না রোবোটিক ভাইব্রেটর মেশিন। ম্যানুয়ালি এক মাসের মধ্যে তুলে ফেলতে হবে পিচের আস্তরণ। আর এই কাজের সময় কোনও ভাবেই যাতে ব্রিজ না কেঁপে ওঠে, সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে। পূর্ত দপ্তরের মতে, বেলগাছিয়া ব্রিজের পিচের আস্তরণ তুলে ফেললেই বেড়ে যাবে বহন ক্ষমতা। 

জনপ্রিয়

Back To Top