আজকালের প্রতিবেদন—উল্টোডাঙার পর এবার বেহালা এলাকার অটো–সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী আশ্বাস দিয়েছেন, বিশ্বকর্মা পুজোর পর বৈঠক করবেন। প্রয়োজনে ছোট বাস চালানো হবে।
অ্যাপ–ক্যাব সংস্থা ওলার সঙ্গে রাজ্য পরিবহণ পরিকাঠামো উন্নয়ন নিগমের সমঝোতাপত্র সই হয়েছিল। পাঁচ হাজার যুবক–যুবতীর কর্মসংস্থান তৈরির লক্ষ্যে। এদিন বিধাননগরের নলবনে ওই উদ্যোগের প্রথম ধাপে ৫০ জনকে গাড়ির চাবি তুলে দেওয়া হয়। উপস্থিত ছিলেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, দপ্তরের সচিব বি পি গোপালিকা, ওলার পূর্বাঞ্চলের প্রধান সন্দীপ উপাধ্যায়, ওলা ফ্লিটের কলকাতার প্রধান অভীক দাস প্রমুখ।
মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পর অভিযোগ উঠেছে, বেহালা এলাকায় অটোচালকরা ভাড়া বেশি নিচ্ছেন। এ ব্যাপারে শুভেন্দুবাবু জানান, উল্টোডাঙায় যেরকম সমস্যার সমাধান করা হয়েছিল, ওখানেও সেরকম সমস্যার সমাধান করা হবে। প্রয়োজনে ছোট বাস চালানো হবে। বিশ্বকর্মা পুজোর পর বৈঠক করা হবে। তিনি বলেন, ‘‌রাজ্যে কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়ছে। ওলার এই উদ্যোগে ৫ হাজার তরুণ–তরুণী উপকৃত হবেন। সারচার্জ নিয়ে রাজ্যের নির্দেশ মেনে চলছে ওলা। সারচার্জের নামে মানুষের পকেট কাটা বরদাস্ত করা হবে না।’‌ তিনি বলেন, ‘‌রাজ্য সরকারের গতিধারা প্রকল্পে ওলায় ১০ হাজার ৪৫৩ জন যুবক উপকার পেয়েছেন। আরও ৫ হাজার জন উপকৃত হবেন।’‌
ওই গাড়িচালকদের নিরাপত্তা এবং প্রযুক্তির ব্যাপারে প্রশিক্ষণ দেবে ওলা। বিমার ব্যবস্থাও 
করে দেবে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top