Bangla Pokkho: লক্ষ্য বাঙালিদের অধিকার আদায়, এবার আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে ‘বাংলা পক্ষ বার্তা’

মনোজিৎ মালাকার: বাঙালিদের অধিকার লড়াইয়ে গত কয়েক বছর ধরেই কাজ করছে বাংলা পক্ষ। এবার আরও একধাপ এগিয়ে মুখপত্র প্রকাশ করতে চলেছে তারা। ঠিক হয়েছে আগামী শুক্রবার আত্মপ্রকাশ করবে ‘বাংলা পক্ষ বার্তা’।

বাঙালিদের ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য লড়াই করে এই রাজনৈতিক সংগঠন‌। কিন্তু মুখপত্র প্রকাশ করার মূল উদ্দেশ্য কী? বাংলা পক্ষের শীর্ষ পরিষদ সদস্য কৌশিক মাইতি জানান, ‘বাঙালির বিষয় নিয়ে এই সংগঠন কাজ করে। এত পত্রপত্রিকা থাকতেও তারা বাঙালির দাবি নিয়ে তেমন কথা বলে না। দেশজুড়ে বাঙালিদের বঞ্চনার কথা প্রকটভাবে তুলে ধরা, সংগঠনের আদর্শ মানুষের কাছে তুলে ধরা, বাংলা পক্ষের বিভিন্ন কর্মসূচির খবর বাঙালিদের কাছে তুলে ধরা। মূলত এই তিনটি বিষয় নিয়ে প্রচার করবে ‘বাংলা পক্ষ বার্তা’। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলায় অনেক বাঙালি ব্যবসায়ীরা সমস্যার সম্মুখীন হন। এবার তাঁরা এই পত্রিকায় খুব কম খরচে বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। এখন থেকেই অনেক খবর পাচ্ছি। অনেকেরই সাড়া মিলছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকারি পরীক্ষায় বাংলা ভাষা আবশ্যক করতে হবে। বিজেপি বাংলা বিদ্বেষী দল। যারা বাঙালিদের ভাগ করার চেষ্টা করে তারা আমাদের আদর্শগত বিরোধী। এনআরসি আমরা চাই না। কিন্তু যে দলই বাংলাকে বঞ্চনা করবে আমরা গর্জে উঠব। আমাদের পত্রিকায় সেই সব লেখা উঠে আসবে। হিন্দি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধেও আমরা বিরোধিতা করেছি, ছটপুজোয় তিনদিন ছুটি নিয়েও বলেছি।’

আরও পড়ুন:‌ শিল্প সম্মেলনে মোদিকে আমন্ত্রণ মমতার, গ্রহণ করেছেন, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

জানা গিয়েছে, প্রথমে মাসিক পত্রিকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছে ‘বাংলা পক্ষ বার্তা’। প্রথম সংখ্যায় ৫ হাজার কপি ছাপা হয়েছে। তবে এটিকে খুব শীঘ্রই সাপ্তাহিক করা হবে। কৌশিক জানান, ‘প্রথম সংখ্যায় সম্পাদকীয় বিভাগে গর্গ চট্টোপাধ্যায়ের কলমে ‘ভাষা দিয়ে জোড়া মাটি’ প্রবন্ধে ‘মানভূম ভাষা আন্দোলন’-এর কথা তুলে ধরা হয়েছে। স্বাধীনতার পর অক্ষণ্ড মানভূমকে বিহারের সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়। তখন সেখানকার বাঙালিদের যে অত্যাচার করা হয়েছিল তাতে তারা অতিষ্ট হয়ে ১৯৫৬ সালে আন্দোলন শুরু করেছিল। সেখান থেকে মহাকরণে হেঁটে এসেছিলেন নিপীড়ত বাঙালিরা। সেই আন্দোলনের কথা অনেকেই জানেন না। দীর্ঘতম ভাষা আন্দোলনের ফলে পুরুলিয়াকে বাংলার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। প্রথম সংখ্যায় এই মানভূম ভাষা আন্দোলন আমাদের আকর্ষণ।’

আকর্ষনীয় খবর