আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিজেপি নেতাদের কেলেঙ্কারির তালিকা যেন শেষই হচ্ছে না। এবার পাটুলির এক বিজেপি নেতাকে ৪০ লক্ষ টাকা ঘুষ নেওয়ার অপরাধে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। উঠে এল বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের নামও। এই ঘুষ কাণ্ডে নাকি মুকুলের নামও অভিযুক্তদের তালিকায় আছে। আর সেই কারণেই তড়িঘড়ি আগাম জামিনের আবেদনও করেছেন বিজেপির নেতা। সব মিলিয়ে ফের বিতর্কে মুকুল আর তাঁর ঘনিষ্ঠরা। 
বিজেপি সূত্রে খবর, অভিযুক্ত বাবান ঘোষ নাকি টলি পাড়ায় বিজেপির সংগঠন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন। মুকুল রায়ের হাত ধরেই তিনি যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে। কিন্তু সেই বাবানের বিরুদ্ধেই ২০১৫ সালে বেহালার সরশুনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করেন সন্টু মণ্ডল নামে এক ব্যবসায়ী। অভিযোগকারীর দাবি, রেলমন্ত্রকের একটি কমিটির সদস্য করে দেওয়ার নাম করে তাঁর কাছ থেকে ৪৬ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বাবান। কিন্তু, টাকা নিয়েও রেলমন্ত্রকের কমিটির সদস্য করে দিতে পারেননি তিনি। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে সরশুনার থানার পুলিশ। শেষপর্যন্ত সোমবার রাতে অভিযু্ক্ত বিজেপি নেতা বাবান ঘোষকে গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযুক্তের বাড়ি গড়িয়ার পাটুলিতে। সোমবার মধ্যরাতে কার্যত তাঁকে ঘুম থেকে তুলে পুলিশ গ্রেপ্তার করে বলে জানা গিয়েছে।

জনপ্রিয়

Back To Top