আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌চলন্ত অটোতে ছেলের সামনেই মায়ের শ্লীলতাহানি করল অটো চালক। এই ঘটনায় নেতাজিনগর থানা অভিযুক্ত অটো চালক ইমন আলি খানকে গ্রেপ্তার করেছে। অভিযুক্ত অটো চালককে ছেড়ে দেওয়ার দাবি নিয়ে নেতাজিনগর থানার দ্বারস্থ হন অন্যান্য অটো চালকরা। কিন্তু পুলিস তাঁদের দাবি না মানায় প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গড়িয়া–টালিগঞ্জ রুটের অটো বন্ধ করে দেওয়া হয়। যার জেরে ভোগান্তির শিকার হন নিত্য যাত্রীরা। 
মঙ্গলবার বাঁশদ্রোণীর বাসিন্দা এক মহিলা তাঁর ছেলেকে নিয়ে ঊষামোড় থেকে অটোতে ওঠেন। মহিলা অটোচালকের পাশেই বসে ছিলেন। সেই সময়, অটোচালক তাঁর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ করেন তিনি। গড়িয়ায় নেমে প্রতিবাদ করেন ওই মহিলা। চিৎকার শুনে এগিয়ে আসে পুলিশ। নেতাজিনগর থানায় নিয়ে যাওয়া হয় ওই মহিলা ও অটোচালককে। মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে অটোচালককে গ্রেপ্তার করা হয়। খবর পেয়ে অন্যান্য অটোচালকরা থানায় গিয়ে ওই মহিলা ও তাঁর ছেলেকে উত্ত্যক্ত করে এবং হুমকিও দেয় বলে অভিযোগ করা হয়। পরে পুলিশের সাহায্য নিয়ে বাড়ি ফেরেন তাঁরা। অপরদিকে নরেন্দ্রপুরের বাসিন্দা ওই অটোচালককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে আজ সকাল থেকে টালিগঞ্জ-গড়িয়া রুটে অটো চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। অটো ইউনিয়নদের দাবি, মহিলার অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। গড়িয়া-টালিগঞ্জ রুটের অটো ইউনিয়নের সম্পাদক বিতান হালদার জানান, যদি কোনও ঘটনা ঘটে থাকে তবে অবশ্যই পুলিস তার তদন্ত করে সত্য উদঘাটন করবে। অটো চলাচল আর কিছুক্ষণের মধ্যেই চালু হয়ে যাবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে নেতাজিনগর থানার পুলিস।   

 

 


 

জনপ্রিয়

Back To Top