অভিজিৎ বসাক- অ্যাপে দেখে নেওয়া যাবে গাড়ি রাখার ফাঁকা জায়গা কোথায় রয়েছে। আগে থেকে সেই জায়গা বুকও করা যাবে। নিউ টাউনে এমনই ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে। গাড়ি কোথায় রাখা হবে, রাস্তায় বেরিয়ে সে চিন্তা আর করতে হবে না। প্রথমে টাটা মেডিক্যাল সেন্টারের কাছে এই ব্যবস্থা শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে। পরে নিউ টাউনের বাকি অংশেও তা চালু করার ভাবনাচিন্তা রয়েছে।
হিডকো সূত্রে খবর, একটা স্টার্ট আপ গাড়ি রাখার অ্যাপের ব্যাপারে দায়িত্ব পেয়েছে। টাটা মেডিক্যাল সেন্টারের আশপাশে সারাদিনই গাড়ির ভিড় লেগে থাকে। সেখানে চিকিৎসা করাতে আসা রোগী, তাঁদের পরিজন, চিকিৎসকদের গাড়ি রাখা থাকে। কাজেই সেখানে জায়গা পাওয়া অনেক সময় মুশকিল হয়ে যায়। অনেক সময় দূর থেকে বোঝাও যায় না সেখানে কোনও গাড়ি আদৌ আছে কিনা। অ্যাপের সাহায্যে এই সমস্যা দূর হবে। অ্যাপ ব্যবহার করে দেখে নেওয়া যাবে জায়গা খালি আছে কিনা। আর জায়গা বুকও করা যাবে। গাড়ি নিয়ে কোনও কাজের জন্য ওই এলাকায় গেলে তা রাখার জন্য হন্যে হয়ে ঘুরতে হবে না। এর পাশাপাশি আরও একটা সুবিধে হবে গাড়িচালকদের। পার্কিং লটে ভাড়া আদায়ের দায়িত্বে থাকা কর্মী কখনই বাড়তি টাকা দাবি করতে পারবেন না। যন্ত্র বলে দেবে কতক্ষণের জন্য সেখানে গাড়ি রাখা হয়েছিল। সেই হিসেবে ভাড়া দিতে হবে চালককে। 
কীভাবে কাজ করবে ওই অ্যাপ?‌ পার্কিং লটে বসানো হবে ‘‌ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ’‌। সেগুলি সিমেন্টের নীচে গেঁথে রাখা হবে। ফলে মানুষের পায়ের চাপ, বৃষ্টি, ধুলোয় সেগুলি নষ্ট হবে না। কোনও গাড়ি সেখানে রাখা থাকলে ‘‌ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ’–এর সাহায্যে সহজে সেগুলির অবস্থান বোঝা যাবে। সেখানে বসানো হবে সেন্সরও। ফলে অ্যাপে দেখে নেওয়া যাবে সেখানে কতগুলি গাড়ি রয়েছে, কোথায় ফাঁকা জায়গা রয়েছে। এখন গাড়ি রাখতে প্রথম ঘণ্টায় লাগে ২০ টাকা, পরের ঘণ্টা পিছু ১০ টাকা করে। তবে গাড়ি রাখার জন্য আগে থেকে বুক করলে খরচ সামান্য বেশি দিতে হবে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top