আজকালের প্রতিবেদন: তৃণমূলের সাংসদ হয়ে ফেসবুকে ক্রমাগত অবাঞ্ছিত মন্তব্য করায় দল থেকে তাঁকে শোকজ করা হয়। সংসদীয় দলের পক্ষ থেকে দলনেতা সুদীপ ব্যানার্জি অনুপম হাজরাকে শোকজের চিঠি দেন। তাঁর কাছে কৈফিয়তও চাওয়া হয়। বুধবার অনুপম সুদীপের চিঠির জবাব দিয়ে লেখেন, বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য আমি দিদিভাইয়ের কাছে ক্ষমা চাইছি। আমি আর কোনও দিনই এই ধরনের কাজ করব না। দলের নীতি ও আদর্শ মেনে দিদিভাইয়ের প্রদর্শিত পথেই চলব। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, সুদীপ অনুপমের চিঠি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। ফেসবুকে অনুপম গান্ধীজি সম্পর্কে লিখেছিলেন, ‌‘‌গান্ধীজি যদি এতই পপুলার হতেন, তাহলে অ্যাটলিস্ট কোনও ভারতবাসীর কাছে গুলিটা খেতে হত না।’‌ গডসে সম্পর্কে অনুপম লিখেছেন, ‘‌তিনি বিপ্লবী ছিলেন।’‌ দুটি মন্তব্য নিয়ে দলের পক্ষ থেকে মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি বলেছিলেন, দল ছেড়ে তিনি তাঁর কথা লিখুন। অনুপম দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন। তারপরেই সুদীপ অনুপমকে শোকজ করেন।‌
‌‌মমতার কাছে মান্নান
বুধবার বিধানসভায় এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এদিন বিকেলে বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান, মইনুল হক ও আবু তাহের বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে যান। ৫ মার্চ বহরমপুরে কংগ্রেসের সভা রয়েছে। ওই সভায় বাসে করে অনেকেই আসবেন। বাস নিয়ে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, সে–কথাই মান্নানরা মুখ্যমন্ত্রীকে বলেছেন। মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টি পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে দেখতে বলেছেন।‌

জনপ্রিয়

Back To Top